ইলিশিয়া জমিলা বেগম উচ্চ বিদ্যালয়ে নতুন শহীদ মিনারে বিজয় দিবসের উৎসব পালিত-হাজি ইলিয়াছ এমপির অবদানে উচ্ছ্বাসিত শিক্ষক-শিক্ষার্থী

12.jpg

এম.জিয়াবুল হক,চকরিয়া : চকরিয়া উপজেলার ইলিশিয়া জমিলা বেগম উচ্চ বিদ্যালয়। কক্সবাজার জেলার একটি প্রাচীনতম শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। এলাকার প্রসিদ্ধ জমিদার খান বাহাদু মকবুল আলী সাহেব পরিবারের অবদানের এ বিদ্যালয়টি প্রতিষ্ঠা করেন। আগামী বছর বিদ্যালয়টি প্রতিষ্ঠার অর্ধশত বার্ষিকী পালন করবে। বিদ্যালয়ে পড়া-লেখা করার সকল অবকাঠামো থাকলেও ছিলনা একটি শহীদ মিনার। ফলে ২১ ফেব্রæয়ারী কিংবা ২৬ মার্চ এবং ১৬ ডিসেম্বরের মতো রাষ্ট্রীয় গুরুত্বপূর্ণ দিনগুলোতে আমাদের জাতির মুক্তি সংগ্রামের বিভিন্ন পর্যায়ে আত্মাহুতি দানকারীদের প্রতি শ্রদ্ধার নিদর্শণ স্বরূপ ফুল দেওয়া সম্ভবপর ছিলনা ছাত্র-ছাত্রী সহ এলাকার কোন মহলের।
বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি ও পশ্চিম বড়ভেওলা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সিরাজুল ইসলাম চৌধুরী বাবলার অনুরোধের প্রেক্ষিতে সম্প্রতি সময়ে চকরিয়া-পেকুয়া আসনের সংসদ সদস্য হাজি মোহাম্মদ ইলিয়াছ পরিদর্শন করেন বিদ্যালয়টি। বিদ্যালয়ের সভাপতি ও প্রধান শিক্ষকসহ সংশ্লিষ্টরা একটি শহীদ মিনার না থাকার বিষয়টি তাঁর নজরে আনেন এমপির কাছে। সাথে সাথে তিনি স্থাণীয় ইউপি সদস্য আব্দুশ শুক্কুরকে ডেকে দ্রæত শহীদ মিনার নির্মাণের নির্দেশ দেন এবং বলেন- ১৬ ডিসেম্বর বাংলাদেশের বিজয় দিবসের দিন তিনি শহীদ মিনারে ফুল দিয়ে বাঙ্গালীর মুক্তি সংগ্রামের বীর শহীদদের স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করবেন। যেমন কথা, তেমন কাজ। শুরু হলো শহীদ নিমার নির্মাণ কাজ। অবশেষে গত ১৬ ডিসেম্বর এ নির্মিত শহীদ মিনারে তিনি বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী, পরিচালনা কমিটির নেতৃবৃন্দ, শিক্ষক ও স্থানীয় জনসাধারণকে সাথে নিয়ে শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন। এলাকাবাসী তাঁর এ দ্রæত তৎপরতার উচ্চসিত প্রশংসা করেন।
বিদ্যালয়ের নতুন শহীদ মিনার উদ্বোধন অনুষ্ঠানে এসময় উপস্থিত ছিলেন মাতামুহুরী উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি আলহাজ সিরাজুল ইসলাম চৌধুরী বাবলা (চেয়ারম্যান, পশ্চিম বড় ভেওলা ইউপি), প্রধান শিক্ষক আলহাজ¦ এম.গিয়াস উদ্দিন, সহকারী প্রধান শিক্ষক মোঃ শহীদ উল্লাহ্্, স্থাণীয় ইউুপি সদস্য আব্দুশ শুক্কুর, স্থাণীয় ইউনিয়ন জাতীয় পাটির সাবেক সাধারণ সম্পাদক মিজানুর রহমান, এমপির ব্যক্তিগত সহকারি মো.নাজিম উদ্দিন, অপরাপর শিক্ষকবৃন্দ যথাক্রমে মোস্তাক আহামদ, মোহাম্মদ গিয়াস উদ্দিন, আবুল কাশেম, নবী হোছাইন, সাঈদুল ইসলাম, টিটু কান্তি দাশ, বেগম সেলিনা গিয়াস উদ্দিন, সোলতানা রাজিয়া, রওশেন আক্তার, মুহাম্মদ ইসলাম, যীশু শীল ও সঞ্জয় শীল।