চকরিয়ায় ২টি চোরাই গরু উদ্ধার : মহিলা আটক

Chakaria-Pic-Cow-27-11-2017.jpg

এম.জিয়াবুল হক,চকরিয়া : চকরিয়ায় পুলিশ অভিযানে দুইটি চোরাই গরু উদ্ধার করা হয়েছে। এসময় পুলিশ জিজ্ঞাসাবাদের জন্য গোলনাহার বেগম প্রকাশ পুতুন বিবি (৬০) নামের এক মহিলাকে আটক করেছে। গতকাল সোমবার বিকালে থানার এসআই আবদুল খালেক ও এসআই অপু বড়–য়াসহ পুলিশের একটিদল অভিযান চালিয়ে উপজেলার পূর্ব বড় ভেওলা ইউনিয়নের ৩নম্বর ওয়ার্ডের কাসেমআলী সিকদারপাড়া থেকে গরুসহ ওই মহিলাকে আটক করে। আটককৃত মহিলা ওই এলাকার মনজুর আলমের স্ত্রী।
অভিযান পরিচালনাকারী চকরিয়া থানার এসআই আবদুল খালেক বলেন, গত বৃহস্পতিবার রাতে লামা উপজেলার সরই ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান মোহাম্মদ আলী সিকদারের কেয়াজুপাড়াস্থ খামার বাড়ি থেকে চোরের দল ৫টি গরু চুরি করে নিয়ে যায়। এ ঘটনায় চেয়ারম্যানের ছেলে আলমগীর সিকদার বাদি হয়ে লামা থানায় অজ্ঞাতনামা আসামি দেখিয়ে একটি অভিযোগ দায়ের করেন। তিনি বলেন, অভিযোগের সুত্রধরে গতকাল চকরিয়া উপজেলার পুর্ববড় ভেওলা ইউনিয়নে অভিযান চালিয়ে পাঁচটির মধ্যে চোরাই দুইটি গরু উদ্ধার করা হয়েছে।
গতকাল পুলিশের উদ্ধার অভিযানের সময় ঘটনাস্থলে যান গরু মালিকের ছেলে আলমগীর সিকদার। তিনি জানান, খামারবাড়ি থেকে গরু চুরি হওয়ার পরথেকে তিনি সন্ধানে নামেন। গত শনিবার সকালে চকরিয়া উপজেলার ইলিশিয়া জলমহালে দুটি মরা গরু ভাসতে দেখে স্থানীয় জনগনের দেওয়া খবরের ভিত্তিতে তিনি সেখানে যান। আলমগীর সিকদার জানান, মরা গরু দুটি দেখে তিনি সনাক্ত করেন গরু দুটি তাঁর। সর্বশেষ গতকাল সোমবার বিকালে চকরিয়া উপজেলার পূর্ব বড় ভেওলা ইউনিয়নের কাসেমআলী সিকদারপাড়া গ্রামে এসে চুরি হওয়া ৫টি গরুর মধ্যে দুটি গরুর সন্ধান পান। পরে তিনি বিষয়টি চকরিয়া থানার ওসিকে অবহিত করেন।
চকরিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো.বখতিয়ার উদ্দিন চৌধুরী বলেন, গরু মালিকের খবরের ভিত্তিতে থানা পুলিশের একটিদল ঘটনাস্থলে পৌছে অভিযান চালিয়ে চোরাইকৃত দুটি গরু উদ্ধার করেছেন। গরু গুলো রাখার অভিযোগে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য এক মহিলাকে আটক করা হয়েছে। ওসি বলেন, আটককৃত মহিলা জানিয়েছে, স্থানীয় আলী হোসেনের ছেলে আজিজ ও তৈয়ম গোলালের ছেলে নুরুল আবছার গরু দুইটি তাঁর বাড়িতে রাখতে দিয়েছে। ঘটনার সাথে জড়িত চোরদের সনাক্ত ও তাদের গ্রেফতারে ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে। #