হ্নীলা হাইস্কুলের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষকের বিষয় তদন্তে উপজেলা প্রশাসনের ৩ সদস্যের কমিটি গঠন

TEKNAF-PIC-20-11-2017.jpg

বিশেষ প্রতিবেদক : হ্নীলা হাইস্কুলের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষকের এমপিও স্থগিতাদেশ ধামাচাপা দেওয়ার চেষ্টার বিষয়টি খতিয়ে দেখার জন্য উপজেলা প্রশাসন ৩সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করেছে।
গত ২১ নভেম্বর টেকনাফ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জাহেদ হোসেন ছিদ্দিক স্থানীয় সংবাদপত্রে প্রকাশিত
সংবাদের বিষয় অবগত হয়ে গত ২০১৬ সালের আলহাজ্ব আলী আছিয়া স্কুল জেএসসি পরীক্ষা কেন্দ্রের ২নং কক্ষে অনুষ্ঠিত জেএসসি পরীক্ষায় মুখে উত্তর বলে দেওয়ার অপরাধে হ্নীলা উচ্চ বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক আবদুস সালামের এমপিও (মানি পেমেন্ট অর্ডার) স্থগিত করার জন্য চট্টগ্রাম মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ডের এক আদেশে তদন্ত কমিটির প্রতিবেদন এবং পরীক্ষা সংক্রান্ত শৃংখলা কমিটির সুপারিশমতে ওই শিক্ষকের এমপিও স্থগিত করার জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে চট্টগ্রাম শিক্ষাবোর্ড চেয়ারম্যান প্রফেসর শাহেদা ইসলাম গত ১২/০৭/২০১৭ইং স্বাক্ষরিত স্মারক নং-চশিবো/প্রশা-২/ বিভিন্ন /২১১/৯৮/ (অংশ-৩/৪১০/(৬) তারিখ-১২/০৭/২০১৭ইং এবং সুত্র : শৃংখলা কমিটির ২৩/ ০৪/ ২০১৭ইং তারিখের সুপারিশ বাস্তবায়ন করে মাষ্টার আব্দুস সালামের এমপিও বাতিল করতে মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক, কক্সবাজার জেলা প্রশাসক,বিদ্যালয় পরিদর্শক, মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষাবোর্ড চট্টগ্রাম, উপপরিচালক, মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষাবোর্ড, চট্টগ্রাম, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা টেকনাফ ও সংরক্ষণ নথি রেখে পদক্ষেপ নেওয়ার আহবান জানানো হয়। কিন্তু অভিযুক্ত শিক্ষক উক্ত বিষয়টি ধামাচাপা দেওয়ার অপচেষ্টা চালাচ্ছে বলে সংবাদ প্রকাশিত হলে উপজেলা প্রশাসন বিষয়টি খতিয়ে দেখার জন্য টেকনাফ সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট প্রণয় চাকমাকে প্রধান করে ৩সদস্য বিশিষ্ট তদন্ত কমিটি গঠন করেন।
এই ব্যাপারে তদন্ত কমিটির প্রধান নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট প্রণয় চাকমা সাংবাদিকদের জানান, শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের অনিয়ম, দূর্নীতির বিষয়টি গুরুত্বের সাথে খতিয়ে দেখে অপরাধ প্রমাণিত হলে কঠোর পদক্ষেপ নেওয়া হবে। ###