চকরিয়ায় মোবাইল ফোনে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে যুবককে কুপিয়ে হত্যা চেষ্ঠার অভিযোগ!

Chakaria-Picture-18-11-2017.jpg

এম.জিয়াবুল হক, চকরিয়া :
চকরিয়ায় মোবাইল ফোনে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে সাইফুল ইসলাম (২৮) নামের এক যুবককে কুপিয়ে হত্যার চেষ্ঠা করেছে দুর্বৃত্তরা। ঘটনার সময় ওই যুবককে ধারালো অস্ত্রের আঘাতে শরীরের বিভিন্ন স্থানে জখম করা হয়েছে। গতকাল শনিবার সকাল সাতটার দিকে উপজেলার কাকারা ইউনিয়নের শাহওমরাবাদস্থ হাজিম্মাপাড়া এলাকায় ঘটেছে এ হামলার ঘটনা। আহত ওই যুবককে স্থানীয় লোকজন উদ্ধার করে চকরিয়া উপজেলা হাসপাতালে ভর্তি করেছে। আহত সাইফুল উপজেলার কাকারা ইউনিয়নের মাইজকাকারা এলাকার জামাল উদ্দিনের ছেলে।
আহত সাইফুল ইসলামের স্ত্রী আমেনা বেগম অভিযোগ করে বলেন, শনিবার সকাল আনুমানিক ছয়টার দিকে কাজের কথা বলে মোবাইল ফোনে তাঁর স্বামীকে বাড়ি থেকে ডেকে তুলেন একব্যক্তি। ওইসময় সাইফুল বাড়ি থেকে বের হয়ে রাস্তায় গেলে সেখানে আগে থেকে থাকা ৪-৫জন লোক তার স্বামী সাইফুলকে একটি সিএনজি গাড়িতে তুলে নিয়ে যায়।
আমেনা বেগম অভিযোগ করেছেন, বাড়ি থেকে যাওয়ার প্রায় ৪০ মিনিট পর শুনি বাড়ির অদুরে শাহওমরাবাদ হাজিম্মাপাড়া এলাকায় রাস্তার পাশে তাঁর স্বামী সাইফুলকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে জখম করে দুর্বৃত্তরা। ঘটনাস্থলে গিয়ে দেখি, ধারালো অস্ত্রের আঘাতে আমার স্বামীর দুই পা ও হাতে মারাত্মক ভাবে জখম করা হয়েছে। ঘটনার পর স্থানীয় এলাকাবাসি এগিয়ে এসে ঘটনাস্থল থেকে তাকে উদ্ধার করে চকরিয়া সরকারি হাসপাতালে ভর্তি নিয়ে যায়। বর্তমানে সেখানে তার চিকিৎসা চলছে।
হামলার শিকার সাইফুলের স্ত্রী আমেনা বেগম দাবি করেন, কাকারা ইউনিয়নের আইত্যাঘোনায় তার স্বামী সাইফুল ইসলামের পৈত্রিক ভাবে পাওয়া ৪-৫ কানি ধানি জমি রয়েছে। সেখানে মাথাকিলা আরও কিছু জমিতে ধানি চাষ করতেন। সম্প্রতি কাকারা ইউনিয়নের শাওমরাবাদ এলাকার কিছু লোক মাথা কিলা ওই জমি দখল নেওয়ার চেষ্ঠা করে। ইতোমধ্যে বেশ কয়েকবার দখল করতে চাইলে বাধাও দেওয়া হয়েছে। ধারণা করা হচ্ছে, ওই ঘটনার জেরে অভিযুক্তরা আমার স্বামীকে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে হত্যার উদ্দেশ্যে এ হামলার ঘটনাটি করেছে।
চকরিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো.বখতিয়ার উদ্দিন চৌধুরী বলেন, এ ধরণের ঘটনায় থানায় কেউ অভিযোগ দেয়নি। তবে লিখিত অভিযোগ পেলে অবশ্যই ঘটনার সাথে জড়িতদের বিরুদ্ধে তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে। #