স্বস্থিতে সেন্টমার্টিনবাসী : কাল থেকে টেকনাফ সেন্টমার্টিন রুটে পর্যটকবাহী জাহাজ চলাচল শুরু হচ্ছে

st.martin-pic_tt.jpg

নয়ন বর্মন, সেন্টমার্টিন :
টেকনাফ সেন্টমার্টিন নৌ রুটে জাহাজ চলাচলের অনুমতি মিলেছে। রোববার জেলা প্রশাসক এ অনুমতি প্রদান করেন বলে জানা গেছে। এর আগে বিআইডব্লিটিএর অনুমতি মিললেও স্থানীয় প্রশাসন অনুমতি না দেওয়ায় জাহাজ চলাচল শুরু হয়নি।
এদিকে প্রতিবছর অক্টোবর মাস থেকে পর্যটন মৌসুম শুরু হলে সেন্টমার্টিনে পর্যটকদের ঢল নামে। কিন্তু চলতি বছর মিয়ানমারে সহিংসতা শুরু হওয়ায় নিরাপত্তা জনিত কারনে কর্তৃপক্ষ জাহাজ চলাচলের অনুমতি দেয়নি। কারন হিসাবে জানা গেছে সেন্টমার্টিন যাওয়ার পথে জাহাজ গুলোতে এক জায়গায় নাব্যতা সংকটের কারণে মিয়ানমার জলসীমা দিয়ে চলাচল করতে হয়। পরে স্থানীয় প্রশাসনের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছিল মিয়ানমার কর্তৃপক্ষের সাথে এ বিষয়ে কথা বলে অনুমতি প্রদানের বিষয়ে সিদ্ধান্ত গ্রহন করা হবে। সেই অনুযায়ী রোববার ১২ নভেম্বর জেলা প্রশাসন জাহাজ চলাচলের অনুমতি প্রদান করলে টেকনাফ উপজেলা প্রশাসন থেকে অনুমতি প্রদান করা হয়।
টেকনাফ সেন্টমার্টিন রুটের পর্যটকবাহী জাহাজ কেয়ারী সিন্দবাদের ব্যবস্থাপক শাহ আলম জানান রোববার সন্ধার পর অনুমতি পাওয়া গেছে। তাই সোমবার থেকে এ রুটে কেয়ারী সিন্দবাদ জাহাজটি চলাচল করবে। পর্যায়ক্রমে আরও জাহাজ যোগ হবে।
সেন্টমার্টিন ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান নুর আহমদ জানান, জাহাজ চলাচলের অনুমতি পাওয়ায় সেন্টমার্টিনবাসীর মধ্যে স্বস্থি ফিরে এসেছে। কেননা সেন্টমার্টিনের অধিকাংশ মানুষ জীবিকা পর্যটন নির্ভর।