টেকনাফে নাফনদী নির্ভর জেলেরা খাদ্য ও চিকিৎসা সংকটে

Teknaf-Pic-A-1-06-11-17.jpg

সাদ্দাম হোসাইন,হ্নীলা : টেকনাফে নাফনদী নির্ভর প্রকৃত জেলে পরিবার সমুহের মধ্যে চরম অভাব-অনটন বিরাজ করছে। কারো ঘরে অনাহারীদের কান্না আবার কারো ঘরে চিকিৎসাবঞ্চিত রোগীদের আর্তনাদে নাফনদী উপকূলের বাতাস ক্রমশ ভারী হয়ে উঠছে। এলাকার সচেতনমহল প্রশাসন ও জনপ্রতিনিধিদের বিশেষ সমন্বয়ে নাফনদী নির্ভর প্রকৃত জেলেদের মাছ শিকারের ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য সরকারের উর্ধ্বতন মহলের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।
খোঁজ নিয়ে জানা যায়,উপজেলার হোয়াইক্যং উলুবনিয়া, খারাইগ্যাঘোনা, হোয়াইক্যং, লম্বাবিল, কুতুবদিয়া পাড়া, কাঞ্জরপাড়া, নয়াপাড়া, ঝিমংখালী, মিনাবাজার, নয়াবাজার, খারাংখালী, হ্নীলা ইউনিয়নের মৌলভী বাজার, হোয়াব্রাং, সুলিশপাড়া, গুদামপাড়া, জালিয়াপাড়া, লেদা, মোচনী, নয়াপাড়া, জাদিমোরা, দমদমিয়া, টেকনাফ সদরের বরইতলী, নাইট্যংপাড়া, কায়ুকখালীপাড়া, চৌধুরী পাড়া, জালিয়াপাড়া, নাজিরপাড়া, মৌলভী পাড়া, সাবরাং বাজার, নয়াপাড়া ও বৃহত্তর শাহপরীর দ্বীপের নাফনদী নির্ভর হাজার হাজার নিবন্ধিত-অনিবন্ধিত জেলে পরিবার এখন মাছ শিকার করতে না পেরে চরম খাদ্য ও চিকিৎসা সংকটে রয়েছে বলে জানা গেছে। অনেকে অভাব যন্ত্রণায় বিভিন্ন জনপ্রতিনিধি এবং রাজনৈতিক ব্যক্তিদের শরণাপন্ন হয়ে কোন আশার বাণী না পেয়ে হতাশ হয়ে পড়েছে। হ্নীলা নাফনদী মৎস্যজীবি সমবায় সমিতির সভাপতি মোঃ শফি বলেন,মাছ ধরতে না পেরে পরিবার ও ছেলে-মেয়ে নিয়ে চরম কষ্টে আছেন। জাদিমোরা আব্দু শুক্কুর স্থানীয় জেলেরা চরম কষ্টে আছে বলে দাবী করেন। এদিকে সরকারের উর্ধ্বতন মহলের পরবর্তী নির্দেশনা না আসা পর্যন্ত নাফ নদীতে মাছ ধরা বন্ধ থাকবে সীমান্ত সংশ্লিষ্ট সুত্র দাবী করছেন।
এই বিষয়ে টেকনাফ উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান জাফর আহমদ বলেন,নাফনদী নির্ভর প্রকৃতদের কল্যানে যথাযথ পদক্ষেপ গ্রহণের জন্য সরকারের উপর মহলের নিকট দাবী জানাচ্ছি।
হোয়াইক্যং মডেল ইউপি চেয়ারম্যান অধ্যক্ষ নুর আহমদ আনোয়ারী বলেন, নাফনদী নির্ভর জেলেরা সত্যিই বেশী কষ্টে দিনযাপন করছে। তাদের নিরাপত্তা দিয়ে মাছ শিকারের সুযোগ দিতে হবে অথবা বিকল্প জীবিকায়নের পদক্ষেপ নিতে হবে। এখন যা দেওয়ার প্রক্রিয়া চলছে তা পর্যাপ্ত নই।
টেকনাফ উপজেলা সিনিয়র মৎস্য কর্মকর্তা মোঃ দেলোয়ার হোসাইন জানান, নাফনদী নির্ভর খাদ্য সহায়তা দেওয়ার জন্য উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নিকট জানানো হয়েছে। শীঘ্রই নাফনদী নির্ভর ১১শ ৯৫ জনকে ভিজিএফের আওতায় আনা হচ্ছে।