সারা দেশে হাইড্রোলিক হর্ন বন্ধের নির্দেশ

high_court_29917_1478501160.jpg

টেকনাফ টুডে ডেস্ক : সারা দেশে হাইড্রোলিক হর্ন বন্ধের নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। এর আগে রাজধানী ঢাকায় হাইড্রোলিক হর্ন বন্ধের নির্দেশনা ছিল।

রোববার বিচারপতি কাজী রেজা-উল হক ও বিচারপতি মোহাম্মদ উল্লাহর সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

আইনজীবী মনজিল মোরসেদের সম্পূরক আবেদনের শুনানি শেষে আদালত এ আদেশ দেন।

এর আগে রাজধানীতে হাইড্রোলিক হর্ন নিষিদ্ধের নির্দেশ চেয়ে রিট করেছিলেন তিনি। ওই রিটেরই সম্পূরক আবেদনে সারা দেশেই এর ব্যবহার বন্ধের আবেদন জানান মনজিল মোরসেদ।

গত ২৩ আগস্ট আগের রিটের শুনানি শেষে রুল জারিসহ রাজধানীতে চলাচলকারী সব যানবাহনে হাইড্রোলিক হর্নের ব্যবহার ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে বন্ধ, ২৭ আগস্টের পর কোনো গাড়িতে হাইড্রোলিক হর্ন থাকলে সে গাড়ি জব্দ এবং হাইড্রোলিক হর্নের আমদানি বন্ধ করে বাজারে এখনও যেসব হর্ন রয়েছে, তা জব্দের নির্দেশ দেন একই হাইকোর্ট বেঞ্চ।

রুলে হাইড্রোলিক হর্ন বন্ধে বিবাদীদের নিষ্ক্রিয়তা কেন অবৈধ হবে না এবং সারা দেশে হাইড্রোলিক হর্ন বন্ধে কেন নির্দেশ দেয়া হবে না- তা জানতে চান হাইকোর্ট।

স্বরাষ্ট্রসচিব, পুলিশের আইজিপি, হাইওয়ে পুলিশের ডিআইজি, ডিএমপি’র কমিশনার, ট্রাফিকের যুগ্ম কমিশনার, বিআরটিএ’র চেয়ারম্যান, ঢাকার ট্রাফিকের চার ডিসিসহ ২০ জনকে রুলের জবাব দিতে বলা হয়।

দু’সপ্তাহের মধ্যে হাইড্রোলিক হর্নের আমদানি-ব্যবহার নিষিদ্ধের এ আদেশ বাস্তবায়নের বিষয়ে অগ্রগতি প্রতিবেদনও দিতে বলেছিলেন আদালত। এর পরিপ্রেক্ষিতে গত ৮ অক্টোবর প্রতিবেদন দাখিল করেন ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশসহ (ডিএমপি) সংশ্লিষ্টরা।

ওই দিন প্রতিবেদন দেখার পর এখনও যেসব গাড়ির মালিক-চালকের কাছে হাইড্রোলিক হর্ন রয়েছে, সেগুলো ১৫ দিনের মধ্যে নিকটস্থ থানা পুলিশের কাছে জমা দেওয়ার নির্দেশ দেন হাইকোর্ট। আর পুলিশ কর্তৃপক্ষকে বলেন, যেসব হাইড্রোলিক হর্ন জমা হবে, সেগুলো ধ্বংস করতে হবে।

হাইড্রোলিক হর্ন জব্দ করতে ২৩ আগস্ট দেওয়া আদেশও বহাল রাখেন হাইকোর্ট।