টেকনাফের নয়াপাড়া শরণার্থী ক্যাম্পে হাঙ্গার স্ট্রাইক গ্রুপের রোহিঙ্গাদের হামলায় ক্যাম্পের দায়িত্বরত পুলিশের ইনচার্জ আহত, আটক-৩

kabir.jpg

নুরুল করিম রাসেল, টেকনাফ |

কক্সবাজারের টেকনাফে নয়াপাড়া শরণার্থী ক্যাম্পে রেজিস্ট্রার্ড রোহিঙ্গাদের হামলায় ক্যাম্পের দায়িত্বরত পুলিশের ইনচার্জ গুরুত্বর আহত হয়েছেন। এ ঘটনায় ৩ জনকে আটক করা হয়েছে।

শনিবার সকালে ক্যাম্পের অভ্যন্তরে কমিউনিটি সেন্টারের সামনে হামলাকারী রোহিঙ্গারা একটি অবৈধভাবে একটি দোকান ঘর নির্মান করতে চাইলে ক্যাম্প পুলিশের ইনচার্জ কবির হোসেন সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে তাতে বাঁধা দিতে যান।

এসময় বাক বিতন্ডার একপর্যায়ে সৈয়দ আহমদ ও ইব্রাহিমের নেতৃত্বে ৮-১০ জন রোহিঙ্গা লাঠিসোটা ও লোহার রড নিয়ে তার উপর হামলা চালায়। এতে পুলিশ ইনচার্জ কবির হোসেনের মাথায় ও শরীরের বিভিন্ন স্থানে আঘাত প্রাপ্ত হন।

কবির হোসেন জানান, ক্যাম্পের অভ্যন্তরে কোন স্থাপনা তৈরী করতে ক্যাম্প ইনচার্জের অনুমতি নিতে হয়। তাই অনুমতি না নিয়ে দোকান ঘর নির্মানে বাঁধা দিলে তিনি হামলার শিকার হন। তিনি আরো জানান, হামলাকারী রোহিঙ্গারা ক্যাম্পে হাঙ্গার স্ট্রাইক গ্রুপ নামে পরিচিত। এরা ক্যাম্পের রেজিস্ট্রার্ড রোহিঙ্গা হলেও ক্যাম্পের রেশন গ্রহন করেন না। ক্যাম্পে এ ধরনের প্রায় অর্ধশতাধিক রোহিঙ্গা পরিবার রয়েছে বলে জানান তিনি। এ ঘটনায় দায়ী ৮ জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করবেন বলে জানান তিনি।

এ ঘটনার পর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জাহিদ হোসেন সিদ্দিক ও থানার পরিদর্শক (অপারেশন) শফিউল আজম নয়াপাড়া শরণার্থী ক্যাম্প পরিদর্শন করেছেন।

নয়াপাড়া শরণার্থী ক্যাম্প ইনচার্জ সাইফুর রহমান খান জানান, এ ঘটনার পর ক্যাম্পের রোহিঙ্গা নেতাদের সাথে জরুরী বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছে। এতে ক্যাম্পের আইন শৃংখলা অবনতি না হয় সেব্যাপারে তাদেরকে সর্তক করা হয়েছে।

টেকনাফ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তার দায়িত্বে থাকা পরিদর্শক তদন্ত শেখ আশরাফুজ্জামান জানান, এ ঘটনা উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়ে। সে অনুযায়ী পরবর্তী ব্যবস্থা নেওয়া হবে। পুলিশ অভিযান চালিয়ে এক নারী সহ ৩ জনকে প্রাথমিকভাবে আটক করেছে।

টেকনাফ(কক্সবাজার)প্রতিনিধি।
২১ অক্টোবর