ককসবাজার-টেকনাফ সড়কের পথে পথে রোহিঙ্গা

IMG_20170903_114320.jpg

শহিদুল ইসলাম, সীমান্ত থেকে।।
কসবাজার-টেকনাফ মহাসড়কের পথে পথে মিয়ানমার থেকে পালিয়ে অাসা রোহিঙ্গারা। এরা সবাই মুসলিম নাগরিক। এদের মাঝে ঈদের খুশি নেই। ওপারে মিয়ানমার সামরিক জান্তার নিযার্তন সহ্য করতে না পেরে এদেশে অাশ্রয় নিতে দেখা যাচ্ছে। প্রতিদিন এসব রোহিঙ্গাদের হালকা খাবারে ব্যবস্হা করেছ। স্হানীয় এলাকাবাসীর সাথে কথা বলে জানা গেছে,বিগত সময়ের চেয়ে এবার রোহিঙ্গা অনুপ্রবেশ ঘটেছে বেশি।উখিয়া-টেকনাফ উপজেলার বন বিভাগের জায়গা দখল করে অারো ৩টি অস্হায়ী ক্যাম্প করেছে। একারনে সীমান্ত এলাকার মানুষের মাঝে অজানা অাতংক বিরাজ করছে। বিভিন্ন এনজি ও সংস্হার পক্ষ থেকে প্রাথমিক ভাবে শুকনা খাবার দেওয়া হচ্ছে। উখিয়ার পালংখালী ইউনিয়নের বালুখালী ঢালার বাসিন্দা অাবুল কালাম, জসিম উদ্দিন বলেন, রোহিঙ্গারা মানসিক ভাবে ভেঙ্গে পড়েছে। এরা সহায় সম্বল রেখে প্রাণ বাচঁতে এদেশে অাশ্রয় নেয়। উখিয়ার কুতু পালং গ্রামের কলেজ ছাএ রাসেল, জামাল, অাকতার কামাল বলেন, মিয়ানমারের সামরিক বাহিনী ও রাখাইন যুবক কতৃর্ক নিযার্তন সহ্য করতে না পেরে এখানে অাশ্রয় নিয়েছে। এরা তবুও মানুষ। উখিয়ার পালংখালী ইউনিয়নের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান ও উখিয়া উপজেলা অাওয়ামী লীগ নেতা মোজাফর অাহাম্মদ বলেন, গত দশদিন ধরে উপজেলা প্রশাসনের সাবিক সহযোগিতায় সীমান্ত এলাকা রাত দিন পাহারা দিয়েছি। অামার সীমান্ত দিয়ে কোন রোহিঙ্গা অনুপ্রবেশ করতে পারেনি।