জ্বলছে রাখাইন

Tek_6-1.jpg

টেকনাফ টুডে ডটকম |
জ্বলছে রাখাইন রাজ্য। রাখাইনের মংডু ও বুথিডং জেলার রোহিঙ্গা গ্রাম গুলোতে ফের অগ্নিসংযোগ শুরু করেছে সেদেশের সেনারা। রাখাইন রাজ্যে নিরীহ রোহিঙ্গাদের বাড়ি ঘরে ফের আগুন লাগিয়ে দেওয়া হচ্ছে। মর্টার শেল নিক্ষেপ ও হেলিকপ্টার থেকে ছুড়া হচ্ছে গুলি ও বোমা নিক্ষেপ।
দাও দাও করে জ্বলছে রোহিঙ্গা গ্রাম গুলো। আর আগুন লাগিয়ে দেওয়া গ্রামের পলায়নপর নিরীহ নারী পুরুষের উপর চলছে নির্বিচারে গুলি।
রোববার টেকনাফ সীমান্ত থেকে মংডু এলাকার অন্তত ১০টির বেশী গ্রামে আগুন জ্বলতে দেখেছে সীমান্তের লোকজন।
শনিবার মংডু কোলাবিল গ্রাম থেকে পালিয়ে আসা রোহিঙ্গা নজরুল জানান, আগুন লাগিয়ে দেওয়ার পর পলায়নপর রোহিঙ্গাদের উপর চালানো হচ্ছে গুলি। তার চোখের সামনে অনেককে মারা যেতে দেখেছেন তিনি।
নাফ নদীর জেলে ফরিদ মিয়া জানান, নাফ নদী থেকে জ্বলতে থাকা মংডুর রোহিঙ্গা গ্রাম গুলো জ্বেলেরা প্রত্যক্ষ করেছে। মংডু এলাকায় এতো গ্রাম জ্বালিয়ে দেওয়ার দৃশ্য আগে দেখা যায়নি বলে জানান তিনি। এবারের অগ্নিকান্ড গত অক্টোবরের চেয়ে ভয়াবহ বলে মন্তব্য করেন তিনি।

যে সব গ্রামে সেনাদের বর্বরতা চলছে : সীমান্তের বিভিন্ন সূত্রে খবর পাওয়া গেছে শনিবার রাত থেকে রোববার পর্যন্ত রাখাইনের মরিচ্যাবিল, টংবাজার, সাংগ্রানা পাড়া, রাইম্যাপাড়, নয়াপড়া, দারোগাহাট, কাইমপ্রাং, মংডু জেলার, মংডু, কোলাবিল, মেরুল্যা, নাইচেদং, কোয়াংচিবং, হাইচ্ছুরাতা সহ অন্তত ২০টির বেশী রোহিঙ্গা গ্রামে বর্বরতা চালিয়েছে মিয়ানমার সেনারা।

পুশব্যাক ১৫ : টেকনাফে বিজিবি জওয়ানরা পালিয়ে আসা ১৫ জনকে আটকের পর পুশব্যাক করেছে। রোববার ভোরে দমদমিয়া সীমান্ত দিয়ে ৮ জন ও শাহপরীরদ্বীপ সীমান্ত দিয়ে ৭ জনকে পুশব্যাক করেছে।