রাখাইন রাজ্যে ব্যাপক সংঘর্ষ : টেকনাফ সীমান্তে অনুপ্রবেশকালে ১৪৬ জন রোহিঙ্গাকে আটকের পর পুশব্যাক

Rohingha-pic-33.jpg

জাহাঙ্গীর আলম, হোয়াইক্যং :
বাংলাদেশ-মিয়ানমার সীমান্তে মিয়ানমারের অভ্যন্তরে কাল রাতে ব্যাপক গুলাগুলির শব্দ শুনার পর ২৫ আগস্ট ভোর সকালে মিয়ানমার থেকে বাংলাদেশ সীমান্ত অতিক্রম করে ১৪৬ জনের মত নারী শিশু পুরুষ ও বৃদ্ধের একটি রোহিঙ্গা দল টেকনাফ উপজেলার হোয়াইক্যং ইউনিয়ন উলুবনিয়া সীমান্ত দিয়ে প্রবেশের সময় বিজিবি সদস্যরা তাদেরকে আটক করে।

সূত্রে জানা যায়, মিয়ানমারে আল-ইয়াকিন নামক একটি রোহিঙ্গা সংগঠন গত কাল রাতে মিয়ানমারের সীমান্ত রক্ষীবাহিনীর সাথে সারারাত গুলাগুলি করে ফলে মিয়ানমারের আরকান রাজ্যের রোহিঙ্গারা বাংলাদেশের দিকে দেয়ে আসছে। বাংলাদেশে সীমান্তে ভীড় জমানো রোহিঙ্গাদেরকে ২৫ আগস্ট সকালে ১১টায় দিকে টেকনাফ ২বিজিবির সিও লেঃ কর্নেল আরিফুল ইসলাম ও ,টু-আইসি মেজর শরিফুল ইসলাম ও বিজিবির সদস্যরা উলুবনিয়া সীমান্তে জাউবাগান পয়েন্ট দিয়ে উক্ত রোহিঙ্গাদের মিয়ানমারে পুশব্যাক দেয়।

টেকনাফ ২ বিজিবির সিও লেঃ কর্নেল আরিফুল ইসলাম জানান,বাংলাদেশ সীমান্তে যে কোন অপ্রতিকর ঘটনা ও রোহিঙ্গা অনুপ্রবেশ ঠেকাতে আমরা সব সময় প্রস্তুত রয়েছি।এবং অনুপ্রবেশকারী রোহিঙ্গাদেরকে মিয়ানমারে পুশব্যাক দেওয়া হয়েছে।