টেকনাফ পৌর শহর বেওয়ারিশ কুকুরের উপদ্রব বৃদ্ধি

Teknaf-pic-16.08.2017.jpg

মোঃ আশেক উল্লাহ ফারুকী, টেকনাফ :
ভাদ্র মাস হচ্ছে কুকুরের প্রজননের ভরা মওসূম। এ মাসেই শুরু হয় কুকুরের প্রজনন যাত্রা। তবে এর পূর্বে মাসেই তার আলামত দেখা যায়। টেকনাফ পর্যটন ও পৌর শহরের বেশ কয়েকটি স্থানে কুকুরের প্রজনন কেন্দ্র পরিনত হয়েছে। যার কারণে বেওয়ারিশ কুকুরের উপদ্রবে জনজীবন রীতিমতো হুমকি স্বরূপ হয়ে দাড়িয়েছে। অনুসন্ধানে জানা যায়, টেকনাফ পৌর শহরের অলিতে গলিতে বেওয়ারিশ কুকুরের উপদ্রবে যাতায়াতে অনেকটা জীবন ঝুঁকির মধ্যে ভোগছেন পৌরবাসী। পৌর এলাকা পুরাতন পল্লান পাড়া টেকনাফ হাসপাতাল, পল্লী বিদ্যুৎ অফিস, মাছ বাজার, উপজেলা প্রশাসন, এজাহার বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়, বালক উচ্চ বিদ্যালয়, মায়মুনা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়, বার্মিজ সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়, টেকনাফ মডেল থানা, মাংস বাজার, কে.কে পাড়া, অলিয়াবাদ, জালিয়াপাড়া, চৌধুরী পাড়া ও কোলাল পাড়ায় অবাধে বিচরন করছে, বেওয়ারিশ কুকুরের দল। এমনকি ভোর সকালে কুকুরের উপদ্রবের কারণে নিরাপদে মসজিদে যেতে পাচ্ছেনা মুসল্লিরা। হাতে লাটি নিয়ে পৌরবাসী যাতায়াত করছে, কুকুরের ভয়ে। টেকনাফ পুরাতন মডেল থানা ভবনটি এখন কুকুরের প্রজনন কেন্দ্র। কেননা নব-নির্মিত মডেল থানা এবং পুরাতন ভবনটি এখন ফাঁকা। এটি এখন কুকুরের প্রজনন কেন্দ্র হিসাবে ব্যবহৃত হচ্ছে। মডেল থানায় কুকুরের উপদ্রবে বিচারপ্রার্থীরা থানায় সেবা নিতে এসে আতংকের মধ্যে ভোগেন। এছাড়া প্রতিষ্ঠানমূখী শিক্ষার্থীরা কুকুরের উপদ্রব এবং আতংকের মধ্যে ভোগছেন। দীর্ঘদিন যাবৎ কুকুর নিধন অভিযান না থাকাতে বেওয়ারিশ কুকুরের সংখ্যা বৃদ্ধি পেয়ৈছে। এব্যাপারে প্রশাসন কুকুর নিধন অভিযান না থাকায় দিনকে দিন কুকুরের সংখ্যা বাড়ছে।