বাহারছড়ায় ফাইল জালিয়াতির অভিযোগে মাদ্রাসা সুপার বরখাস্ত

borkhasto.jpg

সাদ্দাম হোসাইন, হ্নীলা।
নগদ টাকার লোভে ফাইল জালিয়াতির মাধ্যমে মাদ্রাসায় কর্মরত নন এমন শিক্ষকদের নাম এমপিও তালিকা প্রেরণের অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় টেকনাফের বাহারছড়াস্থ জাহাজপুরা মাঠপাড়া দাখিল মাদ্রাসার সুপার মৌলভী ছৈয়দ আহমদকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে।
সোমবার সকাল ১০টায় মাদ্রাসা সভাপতি স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভাপতি মাওলানা আজিজ উদ্দিনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়,মাদ্রাসা অধিদপ্তরের আদেশ অনুযায়ী ওই মাদ্রাসার ইবতেদায়ী শাখায় কর্মরত ৪জন শিক্ষকের নাম চাওয়া হলে মাদ্রাসা সুপার নগদ টাকার লোভে কমিটির অজান্তে জাল-জালিয়াতির মাধ্যমে মাদ্রাসায় শিক্ষক হিসেবে কর্মরত নন এমন ব্যক্তি মুহাম্মদ উল্লাহ,শাহাব উদ্দিনসহ আরো দু’জনের নাম উপজেলা,জেলা শিক্ষা অফিসের মাধ্যমে মাদ্রাসা অধিদপ্তরে প্রেরণ করে। ফাইল প্রেরণের সময় বর্তমান ও সাবেক সভাপতির সীল-স্বাক্ষর জালিয়াত করেন ওই সুপার। সভায় এ অভিযোগ প্রমাণিত হলে সুপার ছৈয়দ আহমদকে সাময়িক বরখাস্ত করার সর্বসম্মত সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। আগামী সভায় ওই সুপারকে সমস্ত ফাইল-পত্র ও হিসাব-নিকাষ জমা দিতে নির্দেশ দেয়া হয়। সভায় উপস্থিত ছিলেন সহ-সভাপতি স্থানীয় ইউপি মেম্বার ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সদস্য আবুল কাশেম,প্রতিষ্ঠাতা ও দাতা সদস্য হাজী আশরাফ মিয়া,শিক্ষানুরাগী সদস্য ডাঃ মোহাম্মদ রফিক,কোষধ্যক্ষ ও ওয়ার্ড আ’লীগ সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ উল্লাহ,সদস্য ইউনিয়ন যুবলীগ সভাপতি দেলোয়ার হোসেন,ওয়ার্ড যুবলীগ সভাপতি ছৈয়দুল্লাহ,ইউনিয়ন শ্রমিক লীগ যুগ্মআহবায়ক নুরুল আমিন নুরু,রশিদ আহমদ,ছৈয়দ আহমদ,রফিক আলম ভূট্টো ও সদস্য সচিব বরখাস্তকৃত সুপার ছৈয়দ আহমদ।