সড়ক নয়, যেন কাঁদার নদী

AKASH-PIC-1.jpg

মোঃ আবছার কবির আকাশ, টেকনাফ::
টেকনাফ উপজেলার উপকূলীয় ইউনিয়ন বাহড়ছড়া।এই ইউনিয়নের যাতায়তের জন্য সড়ক রয়েছে দুইটি। একটি হচ্ছে মেরিন ড্রাইভ সড়ক আরেকটি হচ্ছে এলজিআইডি সড়ক । দুইটি সড়ক দিয়ে বাহাড়ছড়া বাজারে ঢুকতে মনে হবে যেন নরকে প্রবেশ। সমান্য বৃষ্টি হলেই রাস্তা গুলো আর রাস্তা থাকে না। হয়ে যাই নর্দমা ও কাঁদা। যান চলাচল ও পায়ে হেটে চলা কঠিন হয়ে পড়ে। স্থানীয় কিছু সচেতন লোক একে সড়ক না বলে কাঁদার নদী বলে সন্মোধন করে ।

সরেজমিনে দেখা যায়, দীর্ঘদিন সংস্কার কাজ না করায় বাহারছড়া ইউনিয়নের শামলাপুর বাজারে আধিকাংশ সড়ক চলাচলের অনুপযোগী হয়ে পড়ছে । এই সব সড়ক দিয়ে প্রতিদিন যাতায়ত করে শতশত মানুষ ও যানবাহন। জনবহুল এই অঞ্চলের একটি মাত্র বাজার । এই বাজার সড়কে গমানগমনের একমাত্র অবলম্বন সড়কটির বেহাল দশায় অনেকটাই স্থবির স্থানীয়দের জীবনযাত্রা । এই সব সড়কে প্রতিনিয়ত দূর্ঘটনার শিকার হচ্ছে স্কুলের শিক্ষার্থী ও বাজারে আসা পথচারীরা। কেউ কেউ নির্দিষ্ট গন্তব্যে বের হয়ে কাঁদায় নষ্ট হয়ে বাড়িতে ফিরে যেতে বাধ্য হয় ।

বাহরছড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মৌলভী আজিজ জানান, গর্ত হওয়ার কারনে সড়কের এই অবস্থা আমি সব সময় মেরামাত করার জন্য প্রস্তুত কিন্তু কোন কর্মী তাতে এগিয়ে আসেনা ।