মিয়ানমার থেকে ঝাঁকে ঝাঁকে গবাদিপশু শাহপরীরদ্বীপ করিডোর দিয়ে আসছে

cadel-pic_shapori_tt-pic22.jpg

শাহপরীরদ্বীপ ক্যাডল করিডোরের ফাইল ছবি

মোঃ আশেক উল্লাহ ফারুকী, টেকনাফ :
সামনে কোরবান উপলক্ষে গবাদি পশুর চাহিদা মেটাতে ভারত থেকে গবাদি পশু আমদানির খবর ছড়িয়ে পড়লে শাহপরীরদ্বীপ করিডোর দিয়ে মিয়ানমার থেকে ঝাঁকে ঝাঁকে গবাদি পশু আমদানি হচ্ছে। যাহা অতীতের সকল রেকর্ড অতিক্রম করছে। খোজ নিয়ে জানা যায় ভারত থেকে গবাদি পশু আমদানির আশংকায় টেকনাফ স্থল বন্দর আমদানিকারকেরা আগেভাগে মিয়ানমার থেকে পশু আমদানি শুরু করে দিয়েছে। চলতি বছর নৌপথ থেকে গবাধী পশুর আমদানির মাত্রা বৃদ্ধি পেয়ে আসছে। আগষ্ট মাস থেকে মিয়ানমার থেকে শাহপরীরদ্বীপ করিডোর ক্যাবল দিয়ে ঝাঁকে ঝাঁকে গরু ও মহিশ আমদানি হচ্ছে। ২০০৩ সালে ২৫ মে, শাহপরীরদ্বীপে করিডোর ক্যাবল চালু হবার পর কোরবান উপলক্ষে দুই মাস পূর্বে এ রকম পশু আমদানি নজীর নেই বলে ব্যবসায়ীরা জানায়। দেশের উত্তর সীমান্ত স্থল বন্দর দিয়ে ভারত থেকে পশু আমদানির আগাম খবর পাবার পর ব্যবসায়ীরা বর্তমান বাজার ধরতে মিয়ানমার থেকে অগ্রিম পশু আমদানি শুরু করে দিয়েছে।
বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমে জানা যায়, দেশে সোয়া ৪০ লাখ গবাধীপশু কোরবান এবং অবশিষ্ট পশু ভারত থেকে আমদানি করবে। এদিকে বৈরী আবহাওয়া এবং প্রবল বর্ষন উপেক্ষা করে মিয়ানমার থেকে সাগর পথে প্রতিদিন শাহপরীরদ্বীপ করিডোর ক্যাবল দিয়ে ঝাঁকে ঝাঁকে গবাধী পশু আমদানি হচ্ছে। চলতি বছর আগস্ট মাসে ৭ তারিখ পর্যন্ত ১ হাজার ৭৫৫ গবাধী পশু এসেছে। এর মধ্যে ১ হাজার ৪৪৮ গরু ৩০৭ মহিশ। জুলাই মাসে ৬ হাজার ৭৭০ গবাধীপশু আমদানি হয়েছে। ২০১৬-২০১৭ গেল অর্থ বছরে ৫৪ হাজার ৪৮৬ পশু আমদানি করে ৩ কোটি ৩৪ লাখ ৫৭ হাজার টাকা রাজস্ব আয় হয়েছে। যাহা এর গত বছরের চেয়ে দ্বিগুন বেশী। শাহপরীরদ্বীপ করিডোর ক্যাবল ব্যবহারকারীর মধ্যে যে ক’জন শীর্ষ পশু আমদানি কারক রয়েছেন তার মধ্যে এম.এ হাশেম, মং মং সেন, আব্দুল্লাহ মনির, কাদের হোসেন, মাওঃ বোরহান, শামশু, আবু ছৈয়দ, শরীফ হোসেন, মিয়ানমার থেকে আমদানি হয়ে আসা পশুর স্বাস্থ্য পরীক্ষা ছাড়াই শাহপরীরদ্বীপে খালাস হয়ে আসছে। নিয়মানুযায়ী বিদেশ থেকে যে কোন পণ্য আমদানি হওয়ার পূর্বে পণ্যের গুনগতমান বা পোকামাকড় ও রোগাক্রান্ত কিনা তাহা পরীক্ষা নীরিক্ষা করার বিধান থাকলেও শাহপরীরদ্বীপ করিডোর দিয়ে রোগাক্রান্তবাহী পশু আমদানির আড়ালে চলে আসে। এসব পশু বেশীরভাগ কশাইদের হাতে চলে যায়।