উখিয়ায় ৩০ গ্রাম প্লাবিত: দৈনন্দিন জীবন যাত্রা বিপর্যস্ত

মুহাম্মদ হানিফ আজাদ, উখিয়া (কক্সবাজার) :
উখিয়ায় শূক্রবার থেকে একটানা ভারী বর্ষন ও পাহাড়ী ঢলে প্রায় ৩০ গ্রাম ব্যাপক প্লাবিত হয়েছে বলে জানা গেছে। গত শূক্রবার সকাল থেকে শনিবার বিকাল এ রিপোর্ট লেখাকালীন পর্যন্ত অতি বর্ষন অব্যাহত রয়েছে। টানা ২ দিনের প্রবল বর্ষন ও পাহাড়ী ঢলে অর্ধ শতাধিক ঘরের মাটির দেওয়াল ধ্বসে পড়ে। লন্ডবন্ড হয়ে যায় গ্রামীণ যোগাযোগ ব্যবস্থা। উপজেলার পালংখালী ইউনিয়নের নলবনিয়া, বটতলী, আঞ্জুমান পাড়া, থাইংখালী রহমতের বিল ও বালুখালীতে অন্তত ৬০ টি চিংড়ি ঘের ও মৎস্য পুকুর পানির সাথে একাকার হয়ে কোটি টাকার বিভিণœ প্রজাতির মাছ নাফ নদীতে ভেসে গেছে। উপকূলীয় জালিয়াপালং ইউনিয়নের পাটুয়ার টেক, মনখালী, ছেপটখালী, ডেইল পাড়া, ইনানী, রেজু খালের মোহনা, মাঙ্গালাপাড়া, হলদিয়াপালং ইউনিয়নের পাতাবাড়ী, রুমখা, দক্ষিণ হলদিয়া, পাগলির বিল, তেলি পাড়া, রতœাপালং ইউনিয়নের তুলাতুলি, থিমছড়ি, ভালুকিয়া, আমতলী, গয়ালমারা ও রাজাপালং ইউনিয়নের পশ্চিম ডিগলিয়াপালং, টাইপালং, দরগাহবিল, হরিণমারা, কাশিয়ার বিল, হাজির পাড়া, তুতুরবিল ও উখিয়া সদরের এলাকা প্লাবিত হয়ে আংশিক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। পালংখালী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান এম. গফুর উদ্দিন চৌধুরী জানান, ভারী বর্ষনের কারণে দৈনন্দিন কার্যক্রম বিপর্যস্ত হয়ে পড়ে। উখিয়া উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ও রাজাপালং ইউপি চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর কবির চৌধুরী জানান, অতি বৃষ্টির কারণে আমন চাষাবাদ ও বীজ তলার কাচা ঘর বাড়ি ক্ষতিসাধন হয়েছে।