পৌরসভার কর্মকর্তাকে মারধর ঘটনার প্রতিবাদে জেলার ৪টি পৌরসভায় অনিদিষ্টকালের কর্মবিরতির হুশিয়ারি!

Chakaria-Pc-09-08-2017.jpg

এম.জিয়াবুল হক, চকরিয়া :
কক্সবাজার পৌরসভার প্রশাসনিক কর্মকর্তা ও পৌর কর্মকর্তা-কর্মচারী এসোসিয়েশনের কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এবং জেলা কমিটির ভারপ্রাপ্ত সভাপতি খোরশেদ আলমকে বিনা কারনে সম্পুর্ণ অযোক্তিকভাবে পৌরসভার কাউন্সিলর কায়সার জাবেদ নোবেল কর্তৃক হামলা ও মারধরের ঘটনায় ক্ষুদ্ধ হয়ে গতকাল ৯ আগষ্ট সকালে চকরিয়া পৌরসভার কর্মকর্তা-কর্মচারী এসোসিয়েশনের উদ্যোগে বিশাল মানববন্ধন কর্মসুচি পালিত হয়েছে। মানববন্ধন শেষে পৌরসভা প্রাঙ্গনে অনুষ্টিত হয়েছে প্রতিবাদ সভা।
কর্মসুচীতে সভাপতিত্ব করেন চকরিয়া পৌরসভা কর্মকর্তা-কর্মচারী এসোসিয়েশনের সভাপতি মোস্তাক আহমদ। সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক আরিফুল মোস্তফার সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন পৌরসভা কর্মকর্তা-কর্মচারী এসোসিয়েশন চট্রগ্রাম বিভাগীয় কমিটির যুগ্ম সম্পাদক ও কক্সবাজার জেলা কমিটির সাধারণ সম্পাদক আবু রাশেদ মোহাম্মদ জাহেদ উদ্দিন। বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন পৌরসভা কর্মকর্তা-কর্মচারী এসোসিয়েশন চট্রগ্রাম বিভাগীয় কমিটির উপদেষ্টা পৌরসচিব মাস-উদ মোর্শেদ, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক কর আদায়কারী জহুরুল মওলা, প্রচার সম্পাদক বিল্ডিং পরির্দশক রাজিফ চৌধুরী।
কর্মবিরতি অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন সংগঠনের নেতা সহকারী প্রকৌশলী মুজিবুর রহমান, উপ-সহকারী প্রকৌশলী মৃনাল কান্তি ধর, মেডিক্যাল অফিসার ডাক্তার মো.লোকমান, হিসাব রক্ষন কর্মকর্তা সফায়াত হোসেন, প্রশাসনিক কর্মকর্তা ছৈয়দুল হক আজাদ, বস্তি উন্নয়ন কর্মকর্তা রেহেনা আক্তার বানু, বাজার পরিদর্শক বশির আহমদ, কর নির্ধারক ফরিদ আহমদ, উচ্চমান সহকারী ওসমান গনী, অফিস সহকারী আবদুল হামিদ, সহকারী কর আদায়কারী নুরুল আবছার, রাকিব হাসান, মোহাম্মদ এমরান, ছলিম উল্লাহ, আদায়কারী রাশেদ কামাল, জানে আলম, মৌলানা রিদুয়ানুল হক, পরিচ্ছন্ন পরিদর্শক আবুল কালাম, স্যানিটারী পরির্দশক হায়দার আলী, ঠিকাদানকারী সুপার ভাইজার নাজেম উদ্দিন, সহকারী ঠিকাদানকারী চম্পক দত্ত, আবদুল লতিফ, মিনহাজ উদ্দিন, রফিক আহমদ, বিদ্যুৎ লাইনম্যান ফরিদুল আলম, সহকারি রফিকুল আলম, অফিস সহায়ক আলী আকবর, খোকন চৌধুরী, নুরুল আমিন, আব্বাস আহমদ, আবছার, আক্তার, সেলিম, মোহাম্মদ সফি প্রমুখ।
সভায় বক্তারা বলেন, অবিলম্বে হামলার ঘটনায় অভিযুক্ত কাউন্সিলরের বিরুদ্ধে যথাযথ আইনী ব্যবস্থা গ্রহনের উর্ধবতন কর্মপক্ষের কাছে দাবি জানান। অন্যথায় কক্সবাজার জেলার ৪টি পৌরসভার অনিদিষ্টকালের জন্য কর্মবিরতি কর্মসুচি ঘোষনা করতে বাধ্য হবেন বলে সভায় বক্তারা হুশিয়ারি দেন। একই সাথে ঘটনার ব্যাপারে বক্তারা তীব্র নিন্দা ও ক্ষোভ প্রকাশ করেন। #