সৌদিতে বিকিনি পরার সুযোগ দিতে বিশেষ আইন!

saudi-arabia-beach_54293_1501911335.jpg

টেকনাফ টুডে ডেস্ক :
কট্টর মুসলিম দেশ সৌদি আরব এবার পর্যটনকেন্দ্রে নারীদের বিকিনি পরার সুযোগ দিতে বিশেষ আইন হচ্ছে। খবর ইউএসএ টুডের।

লোহিত সাগরের সৈকতে সৌদি আরব আন্তর্জাতিক মানের যে সব বিলাসবহুল রিসোর্ট তৈরি করতে যাচ্ছে সেগুলোতে বিদেশি পর্যটক টানতে এ ব্যবস্থা গ্রহণ করতে যাচ্ছে।

সৌদি আরবের নতুন যুবরাজ ওই বিচ রিসোর্টের পরিকল্পনা ঘোষণা করেছেন। সেখানে নারীদের বিকিনি পরার সুযোগ দিতে বিশেষ আইন প্রণয়ন করা হবে।

তেলের উপর নির্ভরতা কমিয়ে পর্যটন থেকে আয় বাড়াতে নতুন যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমান মঙ্গলবার ‘রেড সি প্রজেক্ট’ শীর্ষক বিশাল পরিকল্পনার কথা ঘোষণা করেন।

এ পরিকল্পনার কথা জানিয়ে সৌদি সরকারের যে বিবৃতি দেয়া হয়েছে, তাতে পর্যটনের বৈশ্বিক মান বজায় রাখার কথা বলা হলেও সরাসরি বিকিনি পরার সুযোগ দেয়া বা পোশাক-পরিচ্ছদ বিধি নিয়ে নিয়ে কিছু বলা হয়নি।

তবে যুক্তরাজ্যের একটি ট্যাবলয়েটের বরাত দিয়ে মার্কিন গণমাধ্যম বলছে, পর্যটনকেন্দ্রগুলোর জন্য বিশেষ আইন করা হবে, যাতে সারা শরীর ঢেকে রাখার পরিবর্তে নারীদের বিকিনি পরার সুযোগ থাকবে।

সমুদ্র সৈকতে বোরকা পরা বাধ্যতামূলক থাকলে পর্যটকরা মুখ ফিরিয়ে নেবে বলে সৌদি রাজতন্ত্র রিসোর্টের আন্তর্জাতিক মানের সঙ্গে সঙ্গতি রেখে বিশেষ আইন তৈরির মাধ্যমে এসব রিসোর্ট পরিচালনার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বলে জানা গেছে।

নারী বিষয়ে সৌদি আরবের আইন-কানুন বিশ্বে সবচেয়ে রক্ষণশীল। নারীদের গাড়ি চালানোয় নিষেধাজ্ঞা ও সঙ্গে পুরুষ নিয়ে ঘর থেকে বের হওয়ার বিধান অন্যতম।

উপরন্তু ঘরের বাইরে নারীদের মাথায় স্কার্ফের সঙ্গে পুরো শরীর ঢাকতে হয়। গত মাসেই পরিত্যক্ত একটি গ্রামে মিনি স্কার্ট পরে ছবি তোলার অপরাধে এক তরুণীকে গ্রেফতার করা হয়।