বঙ্গোপসাগরে ৩ লাখ পিচ ইয়াবা ও ট্রলারসহ আটক ৬ মিয়ানমার নাগরিককে টেকনাফ থানায় সোপর্দ

teknaf-costgad-pic-7-03-08-17.jpg

টেকনাফ প্রতিনিধি : সেন্টমাটিনের অদূরে বঙ্গোপসাগর থেকে ৩ লাখ পিচ ইয়াবাসহ আটক ৬ মিয়ানমার নাগরিককে টেকনাফ থানায় সোপর্দ করে মামলা রুজু করেছে কোস্টগার্ড।

বৃহস্পতিবার দুপুরে তাদেরকে থানায় হস্তান্তর করা হয়। এরা হচ্ছে মিয়ানমার আকিয়াব এলাকার মৃত সুলতান আহাম্মদের ছেলে রহিম উল্লাহ(৬০), মিয়রক’ল আলী পাড়ার মকবুল আহাম্মদের ছেলে নাজির আহাম্মদ(৬৫), একই এলাকার মৃত কাদের হোসনের ছেলে এনামুল হোসেন(১৬), মৃত হাবিউর রহমানের ছেলে মোঃ করিম(১৭), মৃত মোহাম্মদের ছেলে মোঃ রফিক(১৪), মৃত রহিম উল্লাহর ছেলে মোঃ ফারুক (১৪)।

উদ্ধার ইয়াবা ও ট্রলারের আনুমানিক মূল্য ১৫ কোটি ৩ লাখ টাকা বলে জানায়।

৩ আগষ্ট বৃহস্পতিবার ভোর রাত আড়াই টার সময় সেন্টমার্টিন্স ছেড়াদিয়া সংলগ্ন বঙ্গোপসাগরে এ অভিযান চালানো হয়।
কোষ্টগার্ড টেকনাফ ষ্টেশন কমান্ডার লে. জাফর ইমাম সজীব জানান, ৩ আগষ্ট বৃহ¯পতির্বা
ভোর রাত আড়াই টার দিকে তার নেতৃত্বে একটি টিম মিয়ানমার থেকে ইয়াবার একটি চালান পাচারের গোপন সংবাদে টেকনাফ সেন্টমাটিন ছেড়া দ্বীপের দক্ষিন বঙ্গোপসাগরে অভিযানে যায়। এ সময় মিয়ানমার সীমানা থেকে একটি ট্রলার আসতে দেখে সংকেত দিলে ট্রলারটি পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা কালে ৩ রাউন্ড গুলি ছুড়ে ধাওয়া করে ট্রলারটি আটক করা হয়। এ ট্রলারটি তল্লাশি চালিয়ে ৩ লাখ পিচ ইয়াবাসহ ৬ মিয়ানমার নাগরিককে আটক করা হয়। আটককৃতরা হল,
এদিকে উদ্ধার ইয়াবা ও ট্রলারসহ আটক মিয়ানমার নাগরিকদের থানায় হস্তান্তর করে মাদক ও বৈদেশিক আইনে মামলা করা হয়েছে বলেও জানিয়েছেন কোষ্টগার্ডের ওই কর্মকর্তা।