হোয়াইক্যংয়ে ৩য় শ্রেণীর এক স্কুল ছাত্রকে ব্যাপক মারধর : পুলিশ ফাঁড়িতে অভিযোগ দায়ের

teknaf-pic-20-02-2017.jpg

জাহাঙ্গীর আলম, টেকনাফ :
টেকনাফ উপজেলার হোয়াইক্যং ইউনিয়ন খারাংগ্যাগোনা গ্রামের স্কুল পড়–য়া ৩য় শ্রেনীর এক ছাত্রকে ব্যাপক মারধর। ২০ ফেব্রুয়ারী সকাল ১১টার দিকে হোয়াইক্যং খারাংগ্যাঘোনা গ্রামের ছৈয়দ হোসনের পুত্র শহিদুল ইসলাম স্কুলে যাওয়ার পথে একই গ্রামের মৃত মোঃ হোসনের পুত্র আব্দু রহমান ফকির উক্ত শিশু শহিদুল ইসলাম কে মারধর করে । এবিষয় স্থানীয় পুলিশ ফাঁড়িতে গিয়ে আহত স্কুল ছাত্র পক্ষ থেকে একটি অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।১৯ ফেব্রুয়ারী আব্দু রহমান ফকিরে ছেলে তাজিনের সাথে শহিদুল ইসলামের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয় পরে বিদ্যালয়ের শিক্ষক বিষয়টি সমাধান করে দেয় । তারই সুত্র ধরে পরেদিন আব্দু রহমান ফকির, ছেলের প্রতিশোধ নিতে রাস্থায় আগে থেকে উৎতপেতে তাকে এরপর আব্দু রহমান ফকিরের বাড়ি সামনের রাস্থা দিয়ে স্কুলে যাওয়ার সময় শহিদুল ইসলামকে মারধর করে। শহিদুল ইসলামের চিৎকারে বাহাড়ছড়া থেকে বেড়াতে আসা নুরুল বশর নামের এক ব্যাক্তি তাকে উদ্ধারে এগিয়ে আসলে উক্ত আব্দু রহমান ফকির তাকেও মারধর করে।

শহিদুল ইসলামের ও নুরুল বশরের শরিরে বিভিন্ন অংশে জখম হয় । পরে তারা স্থানীয় চিকিৎসকের কাছে প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়ে উখিয়া সদর হাসপাতালা ভর্তি হয়েছে বলে জানা যায়।

একটি সুত্রে জানা যায়,আব্দু রহমান ফকির এলাকাতে বইদ্দালীর নাম করে বিভিন্ন রকমের অপরাধ মুলক কর্মকান্ড চালিয়ে যাচ্ছে এবং সেই নিজে বিভিন্ন রকমের মাদক সেবন করে আসছে ।

হোয়াইক্যং পুলিশ ফাঁড়ি আইসি এস আই,রিপন কুমার দাশ জানান, উক্ত স্কুল ছাত্রকে মারধরে বিষয় নিয়ে একটি অভিযোগ দায়ের হয়েছে এবং তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে। শহিদুল ইসলাম হোয়াইক্যং কাটাখালী সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৩য় শেণীর ছাত্র।