মামলার পরামর্শ : বিশ্বব্যাংককে ক্ষমা চাইতে হবে: আইনমন্ত্রী

bangladesh-parliament_39304_1486905444.jpg

টেকনাফ টুডে ডেস্ক :
পদ্ম সেতু নির্মাণ প্রকল্পে দুর্নীতির ষড়যন্ত্রের মিথ্যা অভিযোগ তোলায় বিশ্বব্যাংককে ক্ষমা চাইতে হবে বলে মন্তব্য করেছেন আইনমন্ত্রী আনিসুল হক।

রোববার জাতীয় সংসদে অনির্ধারিত আলোচনায় অংশ নিয়ে তিনি এ মন্তব্য করেন।

বিকাল পৌনে ৫টার দিকে স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে সংসদের অধিবেশন শুরু হয়।

আইনমন্ত্রী বলেন, ‘বিশ্বব্যাংককে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে ক্ষমা চাইতে হবে। কারণ তারাই নষ্টের মূল।’

এসময় ভুক্তভোগীদের বিশ্বব্যাংকের বিরুদ্ধে মামলার করারও পরামর্শ দেন তিনি।

অধিবেশনের শুরুতেই বিশ্বব্যাংক ইস্যুতে আলোচনার সূত্রপাত করেন জাতীয় পার্টির সংসদ সদস্য কাজী ফিরোজ রশিদ।

আলোচনায় অংশ নিয়ে বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ পদ্মা সেতু প্রকল্পে দুর্নীতির অভিযোগকারীদের ‘দেশের শত্রু’ বলে অভিহিত করেন। তিনি বলেন, ‘এদের বিরুদ্ধে কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহণ করা উচিত হবে।’

বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, ‘আমাদের সকলের উচিত হবে ঐক্যবদ্ধ হয়ে কথা বলা। সেদিন প্রধানমন্ত্রী যে কথা বলেছিলেন, সেটিই সঠিক।’

তোফায়েল আহমেদের বক্তব্যের সঙ্গে সহমত পোষণ করে কৃষিমন্ত্রী বেগম মতিয়া চৌধুরী পদ্মা সেতুর অর্থায়ন নিয়ে ষড়যন্ত্রকারীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানান।

কৃষিমন্ত্রী বলেন, ‘বিশ্ব ব্যাংক নিজেরাই করাপ্ট (দুর্নীতিগ্রস্ত)। তারা দুর্নীতির ওপর দাঁড়িয়ে আছে।’

মাগরিবের নামাজের বিরতির আগ পর্যন্ত আলোচনায় সরকারদলীয় সংসদ সদস্য শেখ ফজলুল করিম সেলিম, আবদুল মান্নান ও জাতীয় পার্টির জিয়াউদ্দিন বাবলু বক্তব্য রাখেন।