রোহিঙ্গা নির্যাতনের ঘটনায় কড়া সমালোচনায় পোপ

pope-francis_38987_1486577916.jpg

টেকনাফ টুডে ডেস্ক :
মিয়ানমারের রোহিঙ্গা মুসলিমদের ওপর দেশটির সেনাবাহিনী ও আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর পরিচালিত নৃশংসতার কড়া সমালোচনা করেছেন খ্রিস্টানদের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় গুরু পোপ ফ্রান্সিস।

বুধবার সাপ্তাহিক ভাষণে পোপ বলেন, মুসলিম ও সাংস্কৃতিক বিশ্বাস নিয়ে বেঁচে থাকার ইচ্ছার কারণেই রোহিঙ্গাদের হত্যা করা হচ্ছে। তাদের ওপর চলছে নির্যাতন ও বর্বরতা।

মিয়ানমারের মুসলিম রোহিঙ্গাদের ওপর পরিচালিত সরকারি বর্বরতার বিষয়ে গত সপ্তাহে প্রতিবেদন প্রকাশ করে জাতিসংঘ। এ প্রতিবেদন প্রকাশের পরই মিয়ানমারের কঠোর সমালোচনা করলেন পোপ।

জাতিসংঘ প্রতিবেদনে বলা হয়, মিয়ানমারের উত্তরাংশের রাখাইন প্রদেশে রোহিঙ্গা মুসলিমদের ওপর বর্বর নির্যাতন চালাচ্ছে দেশটির সরকারি বাহিনী। সেখানে নির্বিচারে নারী-পুরুষ ও শিশুদের হত্যা করা হচ্ছে। চলছে ধর্ষণ ও বাড়ি-ঘরে অগ্নিসংযোগের ঘটনা।

এসব ঘটনার সমালোচনা জানিয়ে পোপ বলেন, ‘তারা (রোহিঙ্গা) বছরের পর বছর ধরে ভোগান্তির শিকার হচ্ছে। তাদের নির্যাতন চলছে। তাদের হত্যা করা হচ্ছে, কারণ তারা নিজেরদের সংস্কৃতি ও মুসলিম বিশ্বাস নিয়ে বাস করতে চায়। আর এ কারণেই তাদের মিয়ানমার থেকে বের করে দেয়া হয়েছে। কিন্তু তারা ভালো, শান্তিপ্রিয়। তারা খ্রিষ্টান নয়। তবে তারা আমাদের ভাইবোন।’