দারুল ইহসান বন্ধের রায় আপিলেও বহাল

daeul_ihsan_38949_1486544554.jpg

টেকনাফ টুডে ডেস্ক |
বেসরকারি দারুল ইহসান বিশ্ববিদ্যালয়ের কার্যক্রম বন্ধ করে হাইকোর্টের দেয়া রায়ের বিরুদ্ধে করা লিভ টু আপিল খারিজ করে দিয়েছেন সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগ।

ফলে দারুল ইহসানের কার্যক্রম বন্ধে হাইকোর্টের দেয়া রায়ই বহাল থাকল।

রায়ের পর অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম সাংবাদিকদের বলেন, দারুল ইহসান বন্ধে হাইকোর্ট বিভাগ যে রায় দিয়েছিলেন, সেই রায়ে সংক্ষুব্ধ হয়ে দারুল ইহসানসহ কয়েকটি বিশ্ববিদ্যালয় আপিল বিভাগে সিভিল পিটিশন দায়ের করে। সেই আবেদনের শুনানি শেষে আপিল বিভাগ দারুল ইহসানের আপিল খারিজ করে দিয়েছেন। ফলে দারুল ইহসান বিশ্ববিদ্যালয় কোনো কার্যক্রম চালাতে পারবে না। বিশ্ববিদ্যালয় হিসেবে তারা যে কার্যক্রম চালিয়ে আসছিল সেটার পরিসমাপ্তি ঘটল।

অ্যাটর্নি জেনারেল আরও বলেন, দারুল ইহসানের মালিকানা নিয়েও দ্বন্দ্ব আছে। এমনকি তাদের সার্টিফিকেটের গ্রহণযোগ্যতা নিয়ে বার কাউন্সিলের প্রশ্ন ছিল।

উল্লেখ্য, মালিকানা দ্বন্দ্ব, আইন বিষয়ে উত্তীর্ণদের বার কাউন্সিলে অ্যাডভোকেটশিপ সনদ পরীক্ষায় অংশ নেয়ার সুযোগ বন্ধসহ বিভিন্ন বিষয়ে দারুল ইহসানের পক্ষে হাইকোর্টে ১২টি রিট করা হয়। এসব রিটের শুনানি শেষে ২০১৬ সালের ১৩ এপ্রিল হাইকোর্ট দারুল ইহসান বন্ধের রায় দেন।

ওই রায়ে আদালত বিশ্ববিদ্যালয়টির ট্রাস্ট্রিদের ১০ লাখ টাকা করে জরিমানা ও শিক্ষার্থীদের ৫ লাখ টাকা করে ক্ষতিপূরণ দিতে বলেন।

রায়ে বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের দুই বছর মেয়াদী এলএলবি কোর্স বন্ধ ও জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের দুই বছরের এলএলবি ডিগ্রী চার বছর মেয়াদী করার নির্দেশ দিয়েছিলেন হাইকোর্ট।

একইসঙ্গে বার কাউন্সিলের ছাড়পত্র নিয়ে বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে আইন বিষয়ে অনার্স কোর্সে ভর্তির আদেশও দিয়েছিল আদালত।

আদালতে রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম।

এদিকে, দারুল ইহসানের পক্ষে ছিলেন ব্যারিস্টার রোকন উদ্দিন মাহমুদ।