উখিয়ায় শুভানন্দ স্থবিরের মহাস্থবির অভিধা গ্রহণ, সংঘদান ও বৌদ্ধ মহাসম্মেলন

876544.jpg

শহিদুল ইসলাম, উখিয়া :
কক্সবাজারের উখিয়া উপজেলার ঐতিহ্যবাহী খয়রাতি প্রজ্ঞামিত্র মহারতœ সার্বজনীন বৌদ্ধ বিহারের অধ্যক্ষ বুদ্ধের ত্যাগ শিক্ষায় উজ্জ্বীবিত ও এতদাঞ্চলরের সংঘ সমাজের প্রিয়মুখ ভদন্ত শুভানন্দ স্থবিরের মহাস্থবির বরণ, জিনরাজ সীমা প্রতিষ্ঠা, অষ্টউপকরণ সহ মহান সংঘদান ও বৌদ্ধ মহাসম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। গত শূক্রবার (৩ ফেব্র“য়ারী) বিহার প্রাঙ্গনে সবুজ চত্বরে সু-সম্পন্ন হয়েছে।
এতে সভাপতি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন অগ্গমহসদ্ধমজ্যোতিকাধজ, একুশে পদক প্রাপ্ত ও রামু কেন্দ্রীয় সীমা বিহারের বিহার অধ্যক্ষ উপ-সংঘরাজ পন্ডিত সত্যপ্রিয় মহাথের প্রধান সদ্ধর্ম দেশক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন শাকপুরা সার্বজনীন তপোবন বৌদ্ধ বিহারের বিহার অধ্যক্ষ সদ্ধর্মজ্যোতিকাধ্বজা বসুমিত্র মহাথের প্রধান জ্ঞাতি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উখিয়া সংঘরাজ ভিক্ষু সমিতির কার্যকরি সভাপতি এস ধর্মপাল মহাথের। উদ্বোধক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কোরিয়ান লোটাস এসোসিয়েশন কর্তৃক আন্তর্জাতিক বুদ্ধিস্ট সনদ প্রাপ্ত ও উখিয়া আনন্দ ভবন বৌদ্ধ বিহারের উপাধ্যক্ষ প্রজ্ঞাবোধি থের, বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন যথাক্রমে ভদন্ত প্রিয়রতœ মহাথের, ভদন্ত ইন্দ্রবংশ মহাথের, সুনন্দপ্রিয় মহাথের মহোদয়গন।
অনুষ্ঠানের পূজনীয় সভাপতি পন্ডিত সত্যপ্রিয় মহাথের দেশনায় বলেন জীবনের প্রথম পর্ব হল পবিত্রতার মধ্য দিয়ে যেদিন একজন ব্যাক্তির শুরু হয়। তিনি বলেন আজকে ভদন্ত শুভানন্দ মহাথের’র মাতা-পিতা গর্বিত হয়েছে এমন উত্তম সন্তান জন্ম ও বুদ্ধ শাসনে দান করে। ভদন্ত শুভানন্দ মহাথের দীর্ঘদিন খয়রাতি প্রজ্ঞামিত সার্বজনীন বৌদ্ধ বিহারে অধ্যক্ষের দায়িত্ব পালন করে সমাজকে একটি সু-শৃঙ্খল পরিবেশে দাড় করিয়েছন। তিনি এই বিহারের অনেক উন্নতি সাধন করেছেন যেমন ভিক্ষুসীমা ঘর প্রতিষ্ঠা সহ আরও কল্যান জনক কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছেন।