এবার ছাত্রদের কাঁধে সওয়ার বিদ্যালয়ের জমিদাতা

human_tragedy_school_38391_1485969650.jpg

জামালপুরের মেলান্দহ উপজেলায় ছাত্রদের কাঁধের ওপর দিয়ে বিদ্যালয়ের জমিদাতা দিলদার হুসেন প্রিন্সের হেঁটে যাওয়া নিয়ে তোলপাড় শুরু হয়েছে।

গত ২৯ জানুয়ারি উপজেলার মাহমুদপুর বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয়ের এক অনুষ্ঠানে এ অমানবিক ঘটনাটি ঘটে।

চাঁদপুরে ওসমানীয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠানে সোমবার উপজেলা আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক এবং চাঁদপুর হাইমচর উপজেলা চেয়ারম্যান নূর হোসেন পাটোয়ারীর এমন কাণ্ডের পর জামালপুরের ঘটনাটি প্রকাশ্যে আসল।

জানা গেছে, গত ২৯ জানুয়ারি মেলান্দহ উপজেলার মাহমুদপুর বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষক আবদুল লতিফ এবং এসএসসি পরীক্ষার্থীদের বিদায়ী অনুষ্ঠান ছিল।

এই অনুষ্ঠান উপলক্ষে বিদ্যালয়ের স্কাউট দলের সদস্যরা একটি মানব সেতু নির্মাণ করে। সেই ‘মানব সেতু’র ওপর দিয়ে হেঁটে যান অনুষ্ঠানের অতিথি এবং বিদ্যালয়ের জমিদাতা দিলদার হুসেন প্রিন্স।

এ সময় ওই দৃশ্য দাঁড়িয়ে দাঁড়িয়ে উপভোগ করার পাশাপাশি তাকে হেঁটে যেতে সাহায্য করেন বিদ্যালয়ের শারীরিক শিক্ষক হাফিজুর রহমান।

বিদ্যালয়ের স্কাউট সদস্যদের নির্মিত ‘মানব সেতু’র ওপর দিয়ে কোনো শিক্ষার্থীর পরিবর্তে দিলদার হুসেন প্রিন্সের হেঁটে যাওয়ার ঘটনাটি স্থানীয়দের মাঝে মিশ্র প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়। ছবিটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ব্যাপকভাবে ছড়িয়ে পড়ে।

মাহমুদপুর বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. আসালতজ্জামান জানান, ২৯ জানুয়ারি বিদ্যালয়ে দুটি অনুষ্ঠান একসঙ্গে চলছিল। তাই এ ধরনের কোনো ঘটনা ঘটেছে কি না জানি না।

তবে স্কাউট সদস্যরা সেদিন তাদের বিভিন্ন শারীরিক কসরত উপস্থাপন করে এবং সেটার অংশ হিসেবে তাদের তৈরি ‘মানব সেতু’র ওপর দিয়ে দিলদার হুসেন প্রিন্স হেঁটে গেলেও তা নজরে আসেনি বলে জানান তিনি।

দিলদার হুসেন প্রিন্সের সঙ্গে মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি শিক্ষার্থীদের শরীরের ওপর দিয়ে হেঁটে যাওয়ার কথা স্বীকার করেন।