উখিয়ায় ফায়ার সার্ভিস স্টেশন চালু করা গণদাবিতে পরিণত হয়েছে

-1.jpg

রফিক মাহমুদ, উখিয়া :
উখিয়ায় ১৫ দিনের মাথায় আবারও ভয়াবহ অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটেছে। আগুনে আব্দুস শুক্কুরের ভাড়া বাসাসহ ৪টি বসত বাড়ি সম্পর্ণ ভাবে পুড়ে ছাই হয়ে গেছে । আগুনে আগামীকাল থেকে শুরু হতে যাওয়া এস এস সি পরিক্ষার একজন পরিক্ষার্থীর প্রবেশ পত্র আগুনে পুড়ে গেছে বলে জানা গেছে। অগ্নিকান্ডের খবর পেয়ে কক্সবাজার থেকে ফায়ার সার্ভিসের একটি ইউনিট ঘটনাস্থলে এসে আগুন নিয়ন্ত্রণ আনার চেষ্টা চালিয়য়ে আগুন নিয়ন্ত্রণ করতে স্বক্ষম হয়েছে। গতকাল ১ ফেব্রুয়ারি বুধবার সকাল ৮ টার দিকে উখিয়া উপজেলার সদরের আদালত ভবনের সামনে উক্ত অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটে। অগ্নিকান্ডের ঘটনায় প্রায় ১০ লক্ষ টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। আগুনে স্থানীয় বাবুলের মেয়ে আজ থেকে শুরু হতে যাওয়া এস এস সি পরীক্ষার্থী জুলি আক্তারের পরীক্ষার প্রবেশ পত্রসহ বই ও মূল্যবান কাগজ পত্র পুড়ে গেছে বলে তার পরিবার সূত্রে জানা গেছে।
প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছে, সকালে হঠাৎ করে বাড়িটির মধ্যে আগুন আর প্রচন্ড ধোয়া দেখতে পেয়ে এলাকাসি দ্রুত এগিয়ে এসে পানি ও মাটি ছিটে আগুন নিয়ন্ত্রণ করার চেষ্টা চালায়। এলাকাবাসি প্রায় ঘন্টা দেড এক চেষ্টা চালিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণ করতে ব্যার্থ হয়। পরে খবর পেয়ে কক্সবাজার থেকে ফায়ারর সার্ভিস সিভিল ডিফেন্সের একটি ইউনিট ঘটনাস্থলে এসে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। আগুন লাগার খবর পেয়ে উপজেলা নিবার্হী অফিসার মোঃ মাঈন উদ্দিন ও উখিয়া থানা ওসি (তদন্ত) মোঃ কায় কিসলো দ্রুত উপস্থিত হয়ে অগ্নিকান্ডের ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। এই সময় তিনি ক্ষতিগ্রস্থ পরিবার গুলোকে পূন্যঃবাসনের ব্যাবস্থা করা হবে বলে তিনি জানিয়েছেন। আগুনের সূত্রপাত বাড়ির রান্নার চুলা থেকে হয়েছে বলে প্রাথমিক ধারণা করেছেন তারা।
এদিকে উপজেলায় গত ১৮জানুয়ারি ভোর রাতে কোটবাজারের দক্ষিণ স্টেশনের ছিদ্দিক কলোনীর ১৪টি ঘরবাড়ি ও দোকান পুড়ে কোটি টাকার উপরে ক্ষয়-ক্ষতি হয়েছে। নিহত হয়েছে জাবেদা নামের প্রতিবন্ধি এক মহিলা। শুধু তাই নয় গত ২৮ জানুয়ারি রতœাপালং ইউনিয়নের পূর্ব রতœা মত্রী বৌদ্ধ বিহারটি পূজারীর মোম বাতির আগুন থেকে অসবধনাতা বসত রাত ৮ টার দিকে আগুন লেগে বিহারটি পুড়ে ছাই হয়ে যায়। বিহারের মূর্তিসহ মূল্যবান সম্পদ পুড়ে ব্যাপক ক্ষয়-ক্ষতি হয়েছে। ১৫ দিনের মাথায় উপজেলায় পৃথক ৩টি অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটায় সাধারণ জনগনের মধ্যে একধরনের চাপা ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। করন দীর্ঘদিন ধরে উখিয়ায় ফায়ার সার্ভিস সিভিল ডিফেন্স নির্ধারিত স্থানে বটতলী নামক এলকায় ভবন নির্মাণ সম্পর্ন হলেও ফায়ার সার্ভিস স্টেশন কার্যক্রম চালু না করায় সাধারণ জনগন তাদের মূল্যবান সম্পদ আগুনে পুড়ে সম্পদ হারিয়ে নিশ্বঃ হয়ে পথে বসেছে অনেকেই।
এব্যাপারে উখিয়া আওয়ামীলীগের সাবেক সভাপতি কবি ও সাহিত্যিক আদিল চৌধুরী বলেন, ফায়ার সার্ভিস সিভিল ডিফেন্স স্টেশনটি চালু করা এখন উখিয়ার মানুষের গণদাবীতে পরিণত হয়েছে। তিনি আরও বলেন স্থানীয় সংসদ সদস্য কক্সবাজার ফায়ার সার্ভিস কতৃপক্ষকে এব্যাপারে বার বার তাগিদ দেওয়া সত্ত্বেও কতৃপক্ষ দায়ছারা হয়ে পড়ায় এখনো উক্ত ফায়ার সার্ভিস স্টেশনটি জনবল নিয়োগ দিয়ে চালু করতে ব্যার্থ হয়েছে। তাই বার বার আগুনে পুড়ে উখিয়ার গণমানুষের কোটি কোটি টাকার ধন-সম্পদ হারিয়ে পথের ফকিরে পরিনত হচ্ছে।