পর্যটন দ্বীপ সেন্টমার্টিনে চলাচলের রাস্তায় মরা কুকুর পড়ে থাকলেও কারও মাথাব্যাথা নেই, দুর্গন্ধে ভারী হয়ে উঠছে পরিবেশ

9999008887.jpg

সাইফুদ্দীন মোহাম্মদ মামুন, টেকনাফ :

পর্যটন দ্বীপ সেন্টমার্টিনে চলাচলের রাস্তায় মরা কুকুর পড়ে থাকলেও কারও মাথাব্যাথা নেই, দুর্গন্ধে ভারী হয়ে উঠছে পরিবেশ। তাছাড়া কয়েকদিন ধরে প্রাসাদ প্যারাডাইস হোটেলের পূর্ব পার্শ্বে ও কবরস্থানের পাশে কয়েকটি মরা কুকুর পড়ে থাকতে দেখা গেছে। যার ফলে ওখান থেকে জনসাধারণ ও পর্যটক যেতে মুখে রুমাল দিয়ে চলাচল করতে হচ্ছে বলে অনেকের কাছ থেকে জানা গেছে। তাছাড়া আর কোন উপায় নেই।

সেন্টমার্টিনের পর্যটক সেবক ওমর ফারুক বলেন, সেন্টমার্টিন দ্বীপটা দেখতে অনেক সুন্দর। তাই এর সৌন্দর্য্য ধরে রাখতে সকলে যদি সচেতন হত তাহলে এই দ্বীপটি দেশ তথা বিদেশের কাছে আরও মূল্যবান হয়ে উঠত।

রেডিও নাফের স্টেশন ম্যানেজার মোঃ সিদ্দিক হোসেন ও সেন্টমার্টিন প্রতিনিধি মোঃ জয়নাল আবেদীন বলেন, স্ব-স্ব জায়গা থেকে যদি সকলে আগ্রহী হয়ে কোন কাজ সমাধানের জন্য চেস্টা করে তাহলে যেকোন জটিল ধরনের সমস্যা হোকনা কেন, তা অবশ্যই সমাধান করা সম্ভব।

কক্সবাজার পরিবেশ অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক সর্দার শরিফুল ইসলাম রেডিও নাফের প্রতিনিধি সাইফুদ্দীন মোহাম্মদ মামুনকে বলেন, কুকুর মরা পড়ে থাকলে নিশ্চয়ই গন্ধ ছড়ানোর পাশাপাশি দূষিত হবে পরিবেশ। তাছাড়া সেন্টমার্টিনে পরিবেশ অধিদপ্তরের কোন লোকজন নেই। অন্যদিকে ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মেম্বাররা চাইলে উক্ত সমস্যার সমাধান করতে পারে কিন্তু তারা এ ব্যাপারে একদম নির্বিকার। তাই যত দ্রুত সম্ভব আমি আপনার থেকে পাওয়া মেসেজের উপরে দ্রুত ব্যবস্থা নিতে চেস্টা করব।