যৌতুক দিতে না পারায় স্ত্রীকে তালাক

689.jpg

বার্তা পরিবেশক :

যৌতুক দিতে না পারায় স্ত্রীকে তালাক দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় স্ত্রী বাদী হয়ে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন ও যৌতুক দাবীর নির্যাতনের দু‘টি মামলা দায়ের করেছে।

জানা যায়, চট্টগ্রাম পাহাড়তলী ৯ নং রোড গ্রীণভিউ আবাসিক এলাকার মো. সহিদুল ইসলাম খোকনের মেয়ে দিনা আকতার রিতুর সাথে প্রেমের সম্পর্কের সূত্র ধরে ২০১৩ সালের ২৮ ডিসেম্বর ১০ লাখ কাবিনে পাহাড়তলী আজমনগর ইস্পাহানী রেল গেইট এলাকায় বসবাসকারী টেকনাফ পৌর সভার ইসলামাবাদ এলাকার আব্দুল মোনাফের ছেলে মো. মোজাহের হোসেন রুবেলের বিয়ে হয়। বিয়ের ১ বছরের মাথায় স্বামী রুবেল ইয়াবা ব্যবসায় জড়িয়ে পড়ে স্ত্রী দিনা আকতার রিতুর কাছ থেকে ১০ লাখ যৌতুক দাবী করে শারিরিক নির্যাতন করে আসছিল।

এছাড়া স্ত্রী ইয়াবা ব্যবসা না করতে স্বামী রুবেলকে অনেকবার বারণ করলে তাতে ইয়াবা ব্যবসা থেকে ফিরে আসেনি। এনিয়ে তাদের মধ্যে ঝগড়া বিবাদ চলে আসছিল।

চট্টগ্রামে বসে টেকনাফ থেকে ইয়াবা কেনার সুবাদে প্রায় সময় আসা-যাওয়ায় টেকনাফ পৌরসভার ইসলামাবাদ এলাকার একটি মেয়ে (লাকী) ছম্মনাম এর সাথে প্রেমের সম্পক গড়ে উঠে।।তাকে বিয়ে করার কথা পাকাপোক্ত হয়।

পরবর্তীতে খুলনা বাগেরহাট এলাকায় ইয়াবা বিক্রি করতে গিয়ে খান জাহান আলী মাজারের খাদেম মুকুল ফকিরের মেয়ে মদিনা আক্তার বন্যার সাথে বিয়ে করার প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন। এসময় স্ত্রী রিতু খবর পেয়ে বিষয়টি বন্যার অভিভাবককে জানালে এ বিয়ে বন্ধ হয়ে যায়। এতে ক্ষুদ্ধ হয়ে স্বামী রুবেল তাকে ১০ লাখ টাকা যৌতুক দাবী করে শারিরিক নিযার্তন করে স্ত্রী রিতুকে পিতার বাড়ি পাঠিয়ে দিয়ে তালাকনামা প্রদান করে। তাদের সংসারে একটি সন্তান জম্ম হয়। এরপর থেকে আর কোন খোঁজ খবর রাখেনি স্বামী রুবেল। পরিশোধ করেনি দেনমোহরের কোন টাকা।

এনিয়ে দিনা আকতার রিতু যৌতুক, শারিরিক নির্যাতন, দেনমোহরের দাবীতে পাহাড়তলী থানা-মামলা নং-১১০০/১৪,২৮৭৬/১৪,১৮২/১৬,জিআর ১৩৮/১৪, মামলা দায়ের করে বিচারের আশায় এখানো প্রশাসনের দ্বারে দ্বারে ঘুরছে।

এসব মামলা তুলে নিতে রুবেল রিতু পরিবারকে প্রাণনাশের হুমকি-ধমকি দিচ্ছে এবং রিতুর পরিবার চরম নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছে। তিনি প্রশাসনের সহযোগিতা কামনা করেছেন।