ইয়েমেনে মার্কিন কমান্ডো হামলায় শিশুসহ নিহত ৩০

noora_awlaki_38173_1485785841.jpg

টেকনাফ টুডে ডেস্ক |
ইয়েমেনে আল কায়েদার একটি ঘাঁটিতে মার্কিন কমান্ডো হামলায় নারী ও শিশুসহ কমপক্ষে ৩০ জন নিহত হয়েছে।

অভিযানে ১৪ আল কায়েদা জঙ্গি নিহত হয়েছে বলে দাবি করেছে মার্কিন সেনাবাহিনী।

রোববার ভোরে আল-বাইদা প্রদেশে এ অভিযানে বেশ কয়েকটি অ্যাপাচি হেলিকপ্টার ব্যবহার করে মার্কিন নেভি সিল-৬ সদস্যরা।

ইয়াকলা এলাকার একটি গ্রামে ওই অভিযানে এক মার্কিন কমান্ডো নিহত ও অপর তিনজন আহত হয়েছে। প্রায় ৪৫ মিনিট স্থায়ী এই অভিযানে আল কায়েদার তিন নেতাসহ ১৪ জঙ্গি নিহত হয়।

একজন প্রাদেশিক কর্মকর্তা বলেন, অভিযানের সময় হেলিকপ্টার থেকে একটি হাসপাতাল, স্কুল ও মসজিদ লক্ষ্য করে হামলা চালানো হয়।

হামলায় নিহত বেসামরিক নাগরিকদের মধ্যে অন্তত ১০ জন নারী ও শিশু রয়েছেন। এদের একজন হলো ইয়েমেনে মার্কিন ড্রোন হামলায় নিহত আল কায়েদা নেতা আনোয়ার আল-আওলাকির ৮ বছর বয়সী কন্যা নূরা আল-আওলাকি। নূরার ভাই আবদুল রহমানও মার্কিন ড্রোন হামলায় নিহত হয়েছিল। বাবা ও ছেলে দুজনই মার্কিন নাগরিক ছিল।

নূরার নানা নাসের আল-আওলাকি জানান, নূরা তার মাকে দেখতে এসেছিল। ওই সময়ই মার্কিন কমান্ডোদের অভিযান শুরু হয়।

নূরার মামা ইয়েমেনের সাবেক পরিবেশ ও পানিসম্পদ উপমন্ত্রী আম্মার আওলাকি এক ফেসুবক পোস্টে বলেন, ‘নূরাকে একাধিক গুলি করা হয়েছে। একটি গুলি তার ঘাড়ে বিদ্ধ হয়।’

তিনি বলেন, ‘তাৎক্ষণিক নিকটস্থ চিকিৎসা কেন্দ্রে নিয়ে যাওয়া সম্ভব না হওয়ায় প্রায় দুই ঘণ্টা নুরার রক্তক্ষরণ হতে থাকে।’

আম্মার আওলাকি বলেন, ‘মৃত্যুর মুহূর্তে নুরা তার মাকে বলছিল- আম্মা তুমি কেঁদো না, আমি ভালো আছি, আমি ভালো…। ফজরের আযানের সময় নুরা মারা যায়।’