রাসায়নিক সার ও কীটনাশক মুক্ত : টেকনাফে বছর ব্যাপী সবজি চাষে ইলিয়াছের সাফল্য

Teknaf-pic_25.01.17.jpg

নুরুল করিম রাসেল, টেকনাফ ।
টেকনাফে একই জমিতে বছর ব্যাপী সবজি চাষে সাফল্য লাভ করেছেন কৃষক ইলিয়াছ। শুধু তাই নই কোন ধরনের রাসায়নিক ব্যবহার না করেই তিনি এ সফলতা অর্জন করেছেন।

উপজেলা কৃষি অফিস ও কোডেক ক্রেল প্রকল্পের সহায়তায় তিনি এ সফলতা অর্জন করেছেন বলে জানান। জানা যায়, প্রাকৃতিক সম্পদ রক্ষার মাধ্যমে জলবায়ু অবস্থার ইতিবাচক পরিবর্তনের লক্ষ্যে এলাকার দরিদ্র জনগোষ্ঠির আর্থ-সামাজিক উন্নয়নে জলবায়ু সহিষ্ণু পরিবেশ বান্ধব এবং টেকসই বিকল্প জীবিকায়নের লক্ষ্যে বননির্ভরশীল জনগনের মধ্যে জলবায়ু সহিষ্ণ আধুনিক কৃষি চাষের প্রসার ঘটানোর জন্য টেকনাফ বণ্যপ্রানী অভয়ারন্যে অন্তর্গত টেকনাফ সাইটএর দক্ষিন দমদমিয়ায় চাষী ইলিয়াছের জমিতে এ প্রদর্শনী সবজি চাষ করা হয়।
এ উপলক্ষে ২৫ জানুয়ারী দমদমিয়া এলাকায় কৃষক মাঠ দিবস পালন করা হয়।

উক্ত কৃষক মাঠ দিবসে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মোঃ শহিদুল ইসলাম,উপ সহকারী কৃষি কর্মকতা আনোয়ার হোসেন,টেকনাফ সদর বিট কর্মকর্তা সাজ্জাত হোসেন, ,টেকনাফ সহ ব্যবস্থাপনা কমিটির সদস্য আবুল হাসেম,জালাল উদ্দিন, রতœা শীল ও ক্রেলের লাইভলী হুড ফ্যাসিলিটেটর মো জমির উদ্দিন, প্রশাসন ও হিসাব সহকারী বিটন মুৎসুদি, টিপু সোলতান,অগানাজার শাহ আলম মিয়া ।

কৃষক মাঠ দিবসে উপস্থিত বিট কর্মকতা সাজ্জাতহোসেন তার বক্তব্যে বিশ্ব জলবায়ু পরিবর্তনের বয়াবহতা তুলে ধরেন এবং তা রোধে উপস্থিত সকলকে এগিয়ে এসে জলবায়ু সহিষ্ণ আধুনিক কৃষি চাষে মনোযোগ দেওয়ার আহবান জানান । উপস্থিত উপ সহকারী কৃষি কর্মকতা আনোয়ার হোসেন কৃষকদের আধুনিক কৃষি চাষের জৈব সার ও জৈব কিটনাশক এর উপর গুরুত্ব প্রদান করেন। কৃষক মাঠ দিবসে উপস্থিত উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মোঃ শহিদুল ইসলাম তার দীর্ঘ বক্তব্যে আধুনিক কৃষি চাষ ও মানুষের দৈনন্দিন জীবনে পুষ্টির চাহিদা পুরন ,জলবায়ু পরিবর্তন রোধ এবং বননির্ভশীলতা কমাতে জলবায়ু সহিষ্ণ আধুনিক কৃষি চাষ গুরুত্ব পুর্ণ ভুমিকা পালন করবেন। মাঠ দিবসের সভায় সভাপত্বিত করেন টেকনাফ সহ ব্যবস্থাপনা কমিটির সদস্য আবুল হাসেম।

কৃষক মাঠ দিবসে উপস্থিত কৃষক মো ইলিয়াছ জানান একটু পরিশ্রম ও কিছু পদ্ধতি অনুসরন করলে সারা বছর সবজি চাষ সফল ভাবে করা যায়। সে জানায় খরিপ -১ ৫ শতক জমিতে লালশাক, পুঁইশাক,শশা, বরবটি,তিতকরলা, ঢেড়শ চাষ করে মোট ১৬৪২৬ টাকার সবজি বিক্রি করে, খরিপ-২ একই জমিতে মুলাশাক, লালশাক, শশা, ঝিংগা,চিচিংগা,সীম,বেগুন,টমেটো করে মোট ২৬৮০০ সবজি বিক্রি করে,শীতকালীন সিজনে সে ১০ শতক জমিতে লালশাক, পুদিনাপাতা, ধনেপাতা, তিতকরলা, টমেটো, বেগুন, মরিচ,পিয়াজ ও লাউ চাষ করে মোট ২৫৯০০ সবজি বিক্রি করে সর্বমোট ৬৯১২৬ টাকা । এতে তার মোট খরচ হয়েছে ১৩২৬০০ এর মধ্যে ক্রেল প্রকল্প সহায়তা করেছে ৮৪৮০ সে নিজের টাকা করেছে ৪৭৮০ টাকা এবং পরিশ্রম ।

সে আরো জানায় তার সফলতার পিছনের যে বিষয়টি বেশী ভুমিকা রেখেছে তা হলো উন্নত বীজ, জৈব সার ও জৈব কিটনাশক ব্যবর্হা। ক্রেল প্রকল্প ইলিয়াছের এই সফলতা এবং সারা বছর ব্যাপী সবজি চাষের অভিজ্ঞতা টেকনাফের বননির্ভশীল দরিদ্র কৃষকদের নিকট উপস্থাপনের জন্য কৃষক মাঠ দিবসের আয়োজন করেছেন । উক্ত কৃষক মাঠ দিবসে প্রায় ১০২ কৃষক-কৃষাণীর মধ্যে ৪৫জন কৃষক ও ৫৬ জন কৃষাণী উপস্থিত হয় ।

সভা শেষে উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা উপস্থিত কৃষক-কৃষাণীদের নিয়ে ইলিয়াছের ক্ষেত এবং ইলিয়াছের বাড়ীতে অবস্থিত কেঁচো সারের প্রর্দশণী ও কৃষকদের ঘুরে দেখান। উপস্থিত কৃষক-কৃষাণীগন আশা করছেন ইলিয়াছের এই অভিজ্ঞতা তারা কাজে লাগিয়ে ভবিষতে লাভবান হবেন।