সাংবাদিকদের নিয়ে ট্রাম্পের আপত্তিকর মন্তব্য

trump_inaugurarion_journalist_37447_1485086662.jpg

ডোনাল্ড ট্রাম্পের অভিষেকে জনসমাগম (বাঁয়ে) এবং ২০০৯ সালে ওবামার অভিষেকের জনসমাগম ডানে।

ডোনাল্ড ট্রাম্পের অভিষেকে জনসমাগম (বাঁয়ে) এবং ২০০৯ সালে ওবামার অভিষেকের জনসমাগম ডানে।
দায়িত্ব নেয়ার পর প্রথম দিনই অফিসে বসে গণমাধ্যমকে এক হাত নিলেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। আপত্তিকর মন্তব্য করেছেন সাংবাদিকদের নিয়েও।

ট্রাম্পের অভিযোগ তার শপথ দেখতে আসা জনসমাগমের আকার নিয়ে মিথ্যাচার করছে গণমাধ্যম। এজন্য তাদেরকে ধরা হবে এবং চড়া মূল্য দিতে হবে বলেও হুমকি দেন তিনি।

ট্রাম্প দাবি করেন, ২০ জানুয়ারি ক্যাপিটল হিলে তার শপথ অনুষ্ঠান দেখতে প্রায় ১৫ লাখে মানুষ জড়ো হয়েছিল। এত মানুষ হয়েছিল যে তারা ওয়াশিংটন মনুমেন্ট পর্যন্ত ছড়িয়ে পড়েছিল। কিন্তু সরাসরি সম্প্রচারিত ভিডিওতে সংখ্যাটা এত বোঝা যায়নি।

এছাড়া ক্ষুব্ধ ট্রাম্প সাংবাদিকদেরকে ‘পৃথিবীর সবচাইতে অসৎ মানুষ’ বলে অভিহিত করেন।

ওয়াশিংটনের পার্শ্ববর্তী লংলেতে কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থার (সিআইএ) সদরদফতর পরিদর্শনকালে সব তথ্য-প্রমাণের বিরোধিতা করে তিনি বলেন, শপথ নেয়ার সময় ১৫ লাখ মানুষ সেখানে উপস্থিত ছিলেন। কিন্তু একটা গণমাধ্যম খবর প্রকাশ করেছে শপথ অনুষ্ঠানে মাত্র আড়াই লাখ মানুষ উপস্থিত ছিল।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট বলেন, ‘ঠিক আছে, এটা খারাপ না, তবে এটা মিথ্যা কথা।’

এদিকে হোয়াইট হাউসের প্রেস সেক্রেটারি সিয়েন স্পিসার তার প্রথম সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের তীব্র সমালোচনা করে বলেন, সাংবাদিকরা উদ্দেশ্যমূলকভাবে উপস্থিতির সংখ্যা নিয়ে মিথ্যা তথ্য পরিবেশন করেছেন।

তিনি দাবি করেন, অভিষেক অনুষ্ঠানে এত মানুষ উপস্থিত ছিলেন যা আগে কখনো দেখা যায়নি।

একপর্যায়ে সংবাদ সম্মেলন শেষে সাংবাদিকদের কোনো প্রশ্ন না নিয়েই টেবিল ত্যাগ করেন হোয়াইট হাউসের প্রেস সেক্রেটারি।

উল্লেখ্য, ২০০৯ সালে ওবামা যখন প্রথমবার প্রেসিডেন্ট হিসেবে শপথ নিয়েছিলেন তখন জাতীয় মল এলাকায় ১৮ লাখের মত মানুষ অবস্থান নিয়েছিল বলে কেন্দ্রীয় ও স্থানীয় গোয়েন্দা সংস্থাগুলো জানিয়েছিল।

আর শুক্রবার ট্রাম্পের অভিষেকে আট থেকে নয় লাখ মানুষ উপস্থিত থাকতে পারে বলে ওয়াশিংটন কর্তৃপক্ষ ধারণা করেছিল যা ওবামার সময়ের চেয়ে অর্ধেক।