শীতলক্ষ্যায় মিলল বিলাসবহুল গাড়ি

kapasia_37194_1484837967.jpg

গাজীপুরের কাপাসিয়ার শীতলক্ষ্যা নদী থেকে বৃহস্পতিবার বিকালে একটি বিলাসবহুল গাড়ি উদ্ধার করেছে পুলিশ। সাদা রংয়ের প্রাডো (ঢাকা মেট্রো ঘ ১১-২০২৯) ওই গাড়ির ভেতরে চাবি লাগানো ছিল। নদীর পাশে ওই গাড়ি চলার মতো রাস্তা না থাকায় এ নিয়ে নানা জল্পনা-কল্পনা চলছে। গাড়িটি দেখার জন্য নদীর তীরে কয়েক হাজার মানুষ ভিড় করে।

কাপাসিয়া উপজেলা সদরের দস্যু-নারায়ণপুর বাজার সংলগ্ন শীতলক্ষ্যা নদীর দক্ষিণ তীরে বাদল সরকার নামে এক ব্যক্তি গাছের ডাল ফেলে মাছের ঘের দেন। বাজারের এক ব্যবসায়ী ঘেরের মাঝে কোনো বস্তু কিছুটা ভেসে উঠতে দেখতে পান। পরে আরও লোকজনের মধ্যে বিষয়টি জানাজানি হলে স্থানীয়রা নদীতে নেমে গাড়িটির খোঁজ পান। বিষয়টি পুলিশে জানান তারা। পরে পুলিশের একটি দল এলাকার লোকজনের সহযোগিতায় পানির নিচ থেকে গাড়িটি টেনে তীরে তোলে।

ঘের মালিক বাদল সরকার জানান, মাছ আটকানোর জন্য প্রায় ছয় মাস আগে গাছের ডালপালা ফেলে বেড়া দিই। তখন ওখানে তেমন কিছু দেখতে পাইনি। স্থানীয় এক ব্যবসায়ী জানান, গত বর্ষার সময় হয়তো গাড়িটি এখানে এসে ঠেকেছে। গাড়িটির ওপর প্রায় অনেক পলি জমে ছিল। শুধু একটি কোনা ভেসে ছিল।

কাপাসিয়া থানার ওসি মোহাম্মদ আবু বকর সিদ্দিক যুগান্তরকে বলেন, গাড়িতে চাবির তোড়া ছাড়া অন্য কিছু পাওয়া যায়নি। এটি একটি রহস্যজনক ঘটনা, কারণ নদীর তীরে গাড়ি চলার মতো কোনো রাস্তা নেই। আবার কাপাসিয়ায় গাড়ি বা তেমন ব্যক্তি নিখোঁজের বিষয়ে কোনো জিডি বা কোনো তথ্য আমাদের কাছে নেই। এ ব্যাপারে তদন্ত করে দেখা হবে।