আ’লীগে কর্মী কমে যাচ্ছে, নেতা বেড়ে যাচ্ছে : ওবায়দুল কাদের

obaidul-qaderawami-league-_37269_1484919334.jpg

টুডে ডেস্ক |
আওয়ামী লীগে কর্মী কমে যাচ্ছে, নেতা বেড়ে যাচ্ছে বলে মন্তব্য করেছেন দলের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেন, দলে কর্মী কমে যাচ্ছে, নেতা বেড়ে যাচ্ছে। বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ এখন নেতা উৎপাদনের কারখানা, কর্মী উৎপাদনের কারখানা চাই।

শুক্রবার বিকালে ময়মনসিংহ সার্কিট হাউজ মাঠে মহানগর আওয়ামী লীগ আয়োজিত প্রধানমন্ত্রী বিশেষ সহকারী মাহবুবুল হক শাকিলের স্মরণসভায় জেলা নেতৃবৃন্দের উদ্দেশে তিনি এসব কথা বলেন।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে জেলা নেতৃবৃন্দের উদ্দেশে তিনি বলেন, দল গোছান। চেহারা দেখিয়ে নয়, দলে শৃঙ্খলা আনতে হবে। ক্ষমতায় থেকে খাই-খাই ভাব কমাতে হবে।

নেতাকর্মীদের উদ্দেশে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, মৌসুমী পাখিরা সংশোধন হোন। নতুবা আওয়ামী লীগে থাকার অধিকার নেই। তিনি আরো বলেন, গুটি কয়েক নেতার অপকর্মের দায়ভার শেখ হাসিনা নিতে পারে না। জনপ্রতিনিধিরা জমিদার সুলভ আচরণ করলে আগামীতে মনোনয়ন পাবেন না।

সেতুমন্ত্রী বলেন, শাকিল প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার খুব কাছের মানুষ ছিলেন। তিনি (প্রধানমন্ত্রী) কষ্ট পেয়েছেন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা শাকিলের বাবা-মা’র চেয়েও কম কষ্ট পাননি।

ওবায়দুল কাদের নবগঠিত জেলা ও মহানগর কমিটির নেতৃবৃন্দের উদ্দেশ্যে বলেন, নতুন কমিটি হয়েছে। দ্রুততম সময়ের মধ্যে পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঢাকায় পাঠান। কোনো পকেট কমিটি গ্রহনযোগ্য হবে না।

বিএনপি প্রসঙ্গে সেতুমন্ত্রী বলেন, বিএনপি এখন মরা গাঙ। বাংলাদেশের নালিশ পার্টি। বিএনপি’র এক নেতা আরেক নেতাকে সন্দেহ করে বলে সরকারের দালাল। এটি হাস্যকর।

স্মরণসভায় পাট ও বস্ত্রমন্ত্রী মির্জা আজম মাহবুবুল হক শাকিলের নামে ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কের দিঘারকান্দা বাইপাস মোড়ের নামকরণ করার দাবি জানালে ওবায়দুল কাদের বলেন, জেলা সমন্বয় কমিটি থেকে প্রস্তাব গেলে চত্ত্বরটির নামকরণ করা যেতে পারে। শুধু সময়ের ব্যাপার।

মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি এহতেশামুল আলমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন ধর্মমন্ত্রী আলহাজ অধ্যক্ষ মতিউর রহমান, আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সম্পাদক ডা. দীপু মনি, সাংগঠনিক সম্পাদক আহমদ হোসেন, মিজবাহ উদ্দিন সিরাজ, খালেদ মাহমুদ চৌধুরী, পাট ও বস্ত্রমন্ত্রী মির্জা আজম এমপি, কেন্দ্রীয় নেতা মারুফা আক্তার পপি, উপাধ্যক্ষ রেমন্ড আরেং, ডা. এম আমানউল্লাহ এমপি, নাজিম উদ্দিন আহমেদ এমপি, মোসলেম উদ্দিন এমপি, আনোয়ারুল আবেদিন তুহিন এমপি, শরীফ আহম্মেদ এমপি, ফাহমি গোলন্দাজ বাবেল এমপি, জুয়েল আরেং এমপি, জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি ও মাহবুবুল হক শাকিলের পিতা অ্যাডভোকেট জহিরুল হক খোকা, সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট মোয়াজ্জেম হোসেন বাবুল, মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মোহিত উর রহমান শান্ত প্রমুখ।

এর আগে বাদ জুমা শহরের বাঘমারাস্থ শাহবুবুল হক শাকিলের বাসায় কুলখানি ও মিলাদ মাহফিলের আয়োজন করা হয়। সেখানে কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।