উখিয়ায় এক প্রধান শিক্ষক দুইটি বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সদস্যঃ প্রতিকার চেয়ে লিখিত অভিযোগ

Ovijog_1-1.jpg

নিজস্ব সংবাদদাতা, উখিয়া ॥
উখিয়ায় প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক দুইটি বিদ্যালয় ম্যানেজিং কমিটির দায়িত্ব পালন নিয়ে অভিযোগ উঠেছে স্থানীয় সচেতন মহলের মাঝে। এনিয়ে হাসান জামাল নামের প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য কর্তৃপক্ষ বরাবরে লিখিত অভিযোগ করেছেন ভালুকিয়াপালং সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সদস্য মৌলানা শাব্বির আহম্মদ। অভিযুক্ত প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে তদন্ত প্রক্রিয়া চলছে।
অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, গত ২৮ সেপ্টেম্বর ২০১৬ইং তারিখ প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর স্মারক নং প্রাশিঅ/ওআম/৩৯বিদ্যা-ঢাকা ২০১১/৩৫/৬০০, তারিখ- ৩০ জানুয়ারি ২০১৪ খ্রিঃ মোতাবেক সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক/ সহকারী শিক্ষকগণ অন্য বিদ্যালয়ে ম্যানেজিং কমিটির সদস্য ও সভাপতি পদে নির্বাচনে অংশগ্রহণ করার সুযোগ নেই এবং সরকারি কর্মচারী (আচারণ) বিধিমালা ১৯৭৯ এর পরিপন্থি। এরপরেও উক্ত প্রধান শিক্ষক কিভাবে দুইটি বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সদস্যের দায়িত্ব পালন করেন?
প্রধান শিক্ষক হাসান জামাল ভালুকিয়া পালং সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের বর্তমানে প্রধান শিক্ষকের দায়িত্ব পালনের পাশাপাশি একই স্কুলের ম্যানেজিং কমিটির সদস্য ও পালং আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ের পরিচালনা কমিটির নির্বাচিত সদস্য। অভিযুক্ত প্রধান শিক্ষক হাসান জামালের বিরুদ্ধে বিধি মোতাবেক ব্যবস্থা নিতে গতকাল দুপুরে তদন্ত কার্যক্রম শুরু করেছেন জেলা সহকারী শিক্ষা অফিসার ইকরাম উল্লাহ চৌধুরী। তিনি গতকাল ১৭ জানুয়ারি উখিয়া শিক্ষা অফিস কার্যালয়ে দুইটি বিদ্যালয়ের উভয়পক্ষকে ডেকে সরজমিনে তদন্ত করে দেখেন। তদন্ত শেষে প্রমাণ সাপেক্ষে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে তিনি জানা গেছে।
এব্যাপারে জেলা সহকারী শিক্ষা অফিসার ইকরাম উল্লাহ চৌধুরীর কাছে জানতে চাওয়া হলে তিনি তদন্ত চলছে, কয়েকদিনের মধ্যে তদন্ত প্রতিবেদন যথাযথ কর্তৃপক্ষ বরাবরে দাখিল করা হবে বলে তিনি উপস্থিত সাংবাদিকদের জানান।