উখিয়ায় এক শিক্ষকের বিরুদ্ধে অসামাজিক কর্মকান্ডের তদন্ত চলছে

ovijog-tt_20.jpg

নিজস্ব প্রতিনিধি, উখিয়া ॥
উখিয়া মরিচ্যা পালং সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক মুজিবুর রহমানের বিরুদ্ধে স্কুল ছাত্রী নির্যাতন ও অসামাজিক কর্মকান্ডের অভিযোগের তদন্ত চলছে। তদন্তে প্রাথমিক আলামত পাওয়া গেছে বলে উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার সুব্রত কুমার ধর জানিয়েছেন।
গতকাল সোমবার সকাল ১০ টার দিকে অভিভাবক ও স্কুল ম্যানেজিং কমিটির সদস্যদের উপস্থিতিতে অভিযুক্ত সহকারী শিক্ষককে ব্যাপক জিজ্ঞাাসাবাদ করেছে উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা সুব্রত কুমার ধর ও সহকারী শিক্ষা কর্মকর্তা মোক্তার আহম্মদ। মরিচ্যা পালং সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের বিভিন্ন শ্রেণীর একাধিক শিক্ষার্থীদের সাথে জোর পূর্বক অসামাজিক কার্যকলাপের অভিযোগে ৫ম শ্রেনীর কয়েকজন শিক্ষার্থী ও অভিভাবকগণ সহকারী শিক্ষক মুজিবুর রহমানের অসামাজিক কর্মকান্ডের বিরুদ্ধে অভিযোগ এনে সম্প্রতি উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবরে একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। উপজেলা নির্বাহী অফিসার উক্ত অভিযোগটি আমলে নিয়ে উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসারকে তদন্তপূর্বক রিপোর্ট দাখিল করার জন্য নির্দেশ প্রদান করেন। উক্ত রিপোর্টের প্রেক্ষিতে গতকাল সোমবার সকালে উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার ও সহকারী শিক্ষা অফিসার সরেজমিনে স্কুলটিতে গেলে শতাধিক ছাত্রী তার অসামাজিক কর্মকান্ডের কথা তুলে ধরেন। উক্ত অসামাজিক কর্মকান্ডকে ধামাচাপা দেওয়ার জন্য একটি প্রভাবশালী মহল উঠে পড়ে লেগেছে বলেও জানা গেছে।
তদন্তকারী কর্মকর্তা সুব্রত কুমার ধর সাংবাদিকদের জানান, তদন্ত কাজ এখনো সম্পূর্ণ না হওয়ায় কিছু বলা যাচ্ছে না।
এ ব্যাপারে জানতে চাইলে অভিযুক্ত সহকারী শিক্ষক মুজিবুর রহমান তার বিরুদ্ধে একটি মহল ষড়যন্ত্র করছে বলে দাবী করেন।