হোয়াইক্যং এর জোয়ারী খোলায় ভিলেজারী জমির জবর দখলে নিতে ভুমিহীন রমজান আলীর পরিবারের উপর তান্ডবঃ আহত-৫

4567.jpg

জিয়াউল হক জিয়া,টেকনাফঃ
টেকনাফ উপজেলার হোয়াইক্যং ইউনিয়নের জোয়ারী খোলা নামক গ্রামে ভিলেজারী জমির জবর দখল নিতে ভুমিহীন রমজান আলীর পরিবারের উপর তান্ডব চালাচ্ছে এলাকার একটি প্রভাবশালী মহল। ৮বছরের দখলিয় জমি থেকে উচ্ছেদ করতে সন্ত্রাসী ও লাঠিয়াল বাহিনী রমজান আলীর প্রায় দুই হাজার চারা গাছ কর্তন করে উল্লাস করেছে। এতে বাধা দেয়ায় প্রতিপক্ষের আক্রমনে ৩ মহিলা সহ ৫জন কে আহত হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।
জানা যায়, হোয়াইক্যং ইউনিয়নের জোয়ারী খোলা নামক গ্রামের আব্দুস্সালামের পুত্র রমজান আলী দীর্ঘ ৮ বছর আগে হোয়াইক্যং রেঞ্জের আওতাধীন জোয়ারী খোলা নামক জায়গার বড় পুকুরের পূর্বদিকে প্রায় এক একর জমিতে বসবাস করে আসছিল।এতে রমজান আলী আমগাছ,নারিকেল,সুপারী,কলাগাছ সহ প্রায় দুই হাজার ফলজ ও বনজ গাছ রোপন করে।এতে একই এলাকার কতিপয় বনদস্যুদের কু নজর পড়ে। দীর্ঘদিন থেকে উক্ত ভিলেজারী জমি দখলে নিতে মরিয়া হয়ে উঠে জনৈক ইউনূছ ও তার জামাতা ইলিয়াছ গং। গত ১৩ জানুয়ারী সকালে ইউনূছ ও ইলিয়াছের নেতৃত্বে ৩০-৪০জনের একটি সংঘবদ্ধ ভাড়াটিয়া লাঠিয়াল বাহিনী অতর্কিত ভাবে রমজান আলীর বাড়ী ঘেরাও করে ঘেরা বেড়া উপড়ে ফেলতে শুরু করে। একই সাথে রমজান আলীর রোপিত প্রায় দুই হাজার ফলজ ও বনজ গাছের চারা কেটে সাবাড় করে ফেলে। ভুমিহীন রমজান আলী কর্তনকৃত গাছ সমুহ হোয়াইক্যং বাজারে এনে জনসম্মুখে ভুমিদস্যুদের বিচার চায় এলাকাবাসীর কাছে। তাদের জবর দখলে বাধা দেয়ায় রমজান আলীর পরিবারের উপর আক্রমন করে সন্ত্রাসীরা। এতে শমরুখ বিবি (৪০) স্বামী বদিউররহমান, ফাতেমা বেগম(২০) স্বামী আবুল হাশেম, শাহেদা আক্তার(২৮) সহ মোট ৫ জন আহত হয়েছে। আহতদের কে উখিয়া স্বাস্থ্য কেন্দ্রে ভর্তি করা হয়েছে বলে জানান রমজান আলী। তম্মধ্যে দুজন আশংকাজনক বলে জানা গেছে। বর্তমানে রমজান আলীর পরিবার চরম নিরাপত্তাহীনতায় ভোগছে। তা নিয়ে এলাকায় উত্তেজেনা বিরাজ করছে। যে কোন মুহুর্তে আবারো অপ্রীতিকর ঘটনার আশংকা করছে এলাকাবাসী।