তৃতীয় দিনে নিউজিল্যান্ডের সংগ্রহ ২৯২/৩

tom_latham_36657_1484365367.jpg

New Zealand's Tom Latham celebrates 50 runs during day three of the first international Test cricket match between New Zealand and Bangladesh at the Basin Reserve in Wellington on January 14, 2017. / AFP / Marty Melville (Photo credit should read MARTY MELVILLE/AFP/Getty Images)

বাংলাদেশের ফিল্ডারদের ক্যাচ মিসের মহড়ায় তৃতীয় দিন শেষে ভালো অবস্থানে রয়েছে নিউজিল্যান্ড। বাংলাদেশের পক্ষে প্রথম ওভার করেন অফ স্পিনার মেহেদী হাসান মিরাজ। নিজের দ্বিতীয় ওভারেই উইকেট পেতে পারতেন তিনি। তবে জিত রাভালের ক্যাচটা স্লিপের ফিল্ডার পর্যন্ত পৌঁছায়নি।

নিজের প্রথম ওভারে উইকেট পেতে পারতেন তাসকিনও। এবার স্লিপে রাভালের ক্যাচ ফেলে দেন সাব্বির রহমান। উদ্বোধনী জুটিতে ৫৪ রান হওয়ার পর রাভালকে ফিরিয়ে দেন কামরুল ইসলাম রাব্বি। রাভালের ক্যাচ নিয়ে টাইগারদের স্বস্তি এনে দেন ইমরুল কায়েস।

দলীয় ২২৪ রানের মাথায় আবারও সুযোগ আসে বাংলাদেশের। ক্রমেই বিপজ্জনক হয়ে ওঠা ল্যাথামের ক্যাচ ধরতে পারেননি সাকিব। ব্যক্তিগত ৮৭ রান করা ল্যাথাম তাসকিনের বল আকাশে তুলে দেন। কিন্তু দৌঁড়ে এসে তা লুফে নিতে ব্যর্থ হন সাকিব।

এর আগে দ্বিতীয় দিনের ৫৪২ রানের সঙ্গে আরো ৫৩ রান যোগ করে নিজেদের প্রথম ইনিংস ঘোষণা করে বাংলাদেশ। গতকাল সাকিবের ২১৭, মুশফিকের ১৫৯ রানের পর আজ হাফ সেঞ্চুরি করেন সাব্বির রহমান। জবাবে ব্যাট করতে নেমে নিউজিল্যান্ড তাদের প্রথম ইনিংসে তৃতীয় দিন শেষে ৩ উইকেট হারিয়ে ২৯২ রান সংগ্রহ করেছে। ল্যাথাম ১১৯ ও নিকোলস ৩৫ রান নিয়ে অপরাজিত রয়েছেন।

শুক্রবার ওয়েলিংটনে ঘটনাবহুল একটি দিন পার করেছিল বাংলাদেশ। বেশ কিছু অর্জনের মধ্য দিয়ে সাকিব-মুশফিকরা নিজেদের ঝুলিটাকেও সমৃদ্ধ করেছেন। শনিবার ম্যাচের তৃতীয় দিনে বেশ সতর্কভাবেই শুরু করেছিলেন তারা।
সকালে পেসার তাসকিন আহমেদকে সঙ্গে নিয়ে সাব্বির রহমান বেশ স্বাচ্ছন্দ্যেই খেলে যাচ্ছিলেন নিউজিল্যান্ড বোলারদের। কিন্তু ১৪৪তম ওভারে তাসকিন ফিরে যান ব্যক্তিগত ৩ রানের মাথায়।

তারপরও সাব্বির সাবলীলভাবে খেলে ক্যারিয়ারের দ্বিতীয় হাফ সেঞ্চুরি করেন। তিনি ৮৬ বলে ৫৪ রান করেন। তাকে যোগ্য সাপোর্ট দিয়ে পেসার কামরুল ইসলাম রাব্বি ২১ বল খেলে ৬ রান করেন। সাব্বিরের হাফ সেঞ্চুরির পর বাংলাদেশ ইনিংস ঘোষণা করে ৫৯৫ রানে। ১৫২ ওভার খেলে আট উইকেট হারিয়ে এই রান করে তারা।

এর আগে ম্যাচের দ্বিতীয় দিনে সাকিব আল হাসানের ক্যারিয়ারের প্রথম ডাবল সেঞ্চুরি এবং মুশফিকের সেঞ্চুরিতে বড় সংগ্রহ দাঁড় করায় বাংলাদেশ। সাকিব করেছিলেন ২১৭ এবং মুশফিক ১৫৯ রান। সেই সুবাদে সাত উইকেট ৫৪২ রান করে দ্বিতীয় দিন পার করেছিল বাংলাদেশ। তৃতীয় দিনে আরো ৫৩ রান যোগ করে মুশফিক বাহিনী।

টেস্টে এক ইনিংসে বাংলাদেশের সর্বোচ্চ সংগ্রহ ছিল ৬৩৮ রান। ২০১৩ সালে গলে শ্রীলংকার বিপক্ষে এ রান করেছিল তারা। এবার সেই রানকে ছাড়িয়ে যাওয়ার সুযোগ থাকলেও বাংলাদেশ ইনিংস ঘোষণা করে সুযোগ হাতছাড়া করে।