টেকনাফে অসহায় বিধবার বসত ভিটা জবর দখলে প্রভাবশালী মহল

Teknaf-pic_10.01.jpg

নিজস্ব প্রতিনিধি, টেকনাফ |
টেকনাফে প্রকাশ্য দিবালোকে দেশীয় অস্ত্র শস্ত্রে সজ্জিত হয়ে অসহায় বিধবার বসত ভিটা জবর দখল করেছে একদল স্বশস্ত্র ব্যক্তি।
গত ৯ জানুয়ারী সোমবার সকালে টেকনাফ সদর ইউনিয়নের দরগাহছড়া এলাকায় জবর দখলের এ ঘটনা ঘটে।
এ ঘটনায় হতবিহবল হয়ে পড়েছে স্বামীহারা শাহানাজ বেগম।
অপরদিকে শাহানাজের একমাত্র মেয়ে টেকনাফ বর্ডার গার্ড স্কুলের ৭ম শ্রেনীর ছাত্রী ইয়াছমিন আক্তার নিজ বসত ভিটায় সন্ত্রাসীদের হামলা দেখে আতংকিত হয়ে পড়েছে।
শুধু তাই নই অভিযোগ উঠেছে টেকনাফ লম্বরী মলকাবানু উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ইসমাঈলের নেতৃত্বে জবর দখলের এই ঘটনা ঘটেছে।
আর একটি বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকের নেতৃত্বে একজন অসহায় বিধবা নারীর বসত ভিটা জবর দখলের ঘটনায় এলাকায় তোলপাড় সৃষ্টি হয়েছে।
সরেজমিন পরিদর্শনে বিধবা শাহনাজ ও এলাকাবাসীর সাথে কথা বলে জানা যায়, সোমবার সকালে যখন সবে দিনের সুচনা হচ্ছিল এ সময় লম্বা দা, কিরিচ সহ বিভিন্ন দেশীয় অস্ত্রে সজ্জিত হয়ে একদল লোক শাহানাজের বসত ভিটার সীমানা উপড়ে ফেলে ভিটায় প্রবেশ করে। এসময় তারা বাড়ির উন্নত জাতের আম গাছ সহ বিভিন্ন ফলজ বৃক্ষ নিধন করে তাতে জোরপূর্বক ঘর নির্মাণের জন্য খুঁটি পুতে দেয়।
এসময় বাড়িতে থাকা অসহায় শাহানাজ জবরদখলের কারন জানতে চাইলে তাকে প্রানে মেরে ফেলার হুমকি দিলে সে একমাত্র মেয়েকে নিয়ে বাড়ির ভিতরে আশ্রয় নেয়।
ঘটনার পর হতবিহবল শাহানাজ স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যানের কাছে বিষয়টি অবহিত করেন বলে জানান।
তিনি অভিযোগ করেন মলকাবানু উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ইসমাঈলের নেতৃত্বে একই এলাকার মৃত সোলতানের ছেলে কাছিম, কাছিমের ছেলে মোঃ নুর, কাছিমের জামাতা আজিজুল হক, লেড়– মিস্ত্রি সহ একদল দুর্বৃত্ত জবর দখলের এ ঘটনা ঘটায়।
তিনি আরো জানান, তার স্বামী মৃত আলি আহমদের মালিকানাধীন টেকনাফ লেঙ্গুরবিল মৌজার বিএস ২২৯০ ও ২২৯১ দাগের ১ কানি ৩৫ কড়া বসত ভিটাটি বিয়ের পর থেকে বসবাস করে আসছেন। তার স্বামী মৃত আলী আহমদ ৪০ বছরের বেশী সময় ধরে জমিটির মালিক ও ভোগ দখল করে আসছেন। স্বামী মারা যাওয়ায় তার অসহায়ত্বের সুযোগ নিয়ে হঠাৎ করে উল্লেখিত চক্রটি বসত ভিটার জমি জবর দখলের পায়তারা চালাচ্ছে বলে জানান তিনি।
এ ব্যাপারে তিনি সকলের সহযোগীতা কামনা করেছেন।