চকরিয়ায় উপজেলা ছাত্রলীগের উৎসব মুখর আয়োজনে ৬৯তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন

Chakaria-Picture-04-01-2017.jpg

এম.জিয়াবুল হক, চকরিয়া :
বাংলাদেশ ছাত্রলীগ চকরিয়া উপজেলা শাখার সংগ্রামী সভাপতি জনপ্রিয় ছাত্রনেতা আরিফুল ইসলাম চৌধুরী ও সাধারণ সম্পাদক সাদ্দাম হোসেন মিঠু’র নেতৃত্বে উৎসব মুখর আয়োজনে গতকাল ৪ জানুয়ারী ছাত্রলীগের ৬৯ তম প্রতিষ্ঠাবর্ষিকী উদযাপন করা হয়েছে। দিনের শুরুতে উপজেলা পরিষদ সড়কের ভরামুহুরীস্থ উপজেলা আওয়ামীলীগের কার্যালয়ে ছাত্রলীগের সাবেক ও বর্তমান কমিটির সকলস্থরের নেতাকর্মী এবং আওয়ামীলীগের সিনিয়র নেতৃবৃন্দকে সাথে নিয়ে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে পুষ্পমাল্য অর্পণ করা হয়। এরপর প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর কেক কেটে শুরু হয় আলোচনা সভা পর্ব।
চকরিয়া উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আরিফ চৌধুরীর সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক সাদ্দাম হোসেন মিঠু’র সঞ্চালনায় অনুষ্টিত প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন চকরিয়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামীলীগের সংগ্রামী সভাপতি, নন্দিত জননেতা আলহাজ জাফর আলম এমএ। অনুষ্টানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন সাবেক ছাত্রনেতা ও কক্সবাজার জেলা আওয়ামীলীগের অন্যতম সদস্য আমিনুর রশিদ দুলাল, সাবেক ছাত্রনেতা ও চকরিয়া উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সম্পাদক জামাল উদ্দিন জয়নাল, সাবেক ছাত্রনেতা চকরিয়া পৌরসভা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও ককসবাজার জেলা পরিষদের নির্বাচিত সদস্য জাহেদুল ইসলাম লিটু,সাবেক ছাত্রনেতা ও চকরিয়া পৌর আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আতিক উদ্দিন চৌধুরী, সাবেক ছাত্রনেতা ও বিএমচর ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান আলহাজ বদিউল আলম, বমুবিলছড়ি ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি ও কক্সবাজার জেলা পরিষদের নির্বাচিত সদস্য অধ্যাপক সোলতান আহমেদ, সাবেক ছাত্রনেতা ও উপজেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক কাকারা ইউনিয়নের নির্বাচিত চেয়ারম্যান শওকত ওসমান, সাবেক ছাত্রনেতা ও চকরিয়া উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক কাউছার উদ্দিন কছির, জেলা শ্রমিকলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও উপজেলা সভাপতি জামাল উদ্দিন, চকরিয়া সরকারি কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি তোয়াছিন আনোয়ার জিহান, চকরিয়া পৌরসভা ছাত্রলীগের সাবেক দুই যুগ্ন আহবায়ক হোসাইনুল হক চৌধুরী তানভীর ও সোহেল রানা পারভেজ। এছাড়া অনুষ্টানে উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক ও বর্তমান কমিটির বিপুল সংখ্যক নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।
সভাপতির বক্তব্যে চকরিয়া উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আরিফ চৌধুরী বলেন, ছাত্রলীগ বাংলাদেশের জন্ম সহোদর, স্বাধীন বাংলাদেশের জন্মের আগে ছাত্রলীগের জন্ম হয়েছে। ছাত্রলীগের ত্যাগ, তিতিক্ষা ও সংগ্রাম বাংলাদেশের জন্মকে ত্বরান্বিত করেছে। বাংলাদেশের সকল অর্জন ও উপার্জনকে ছাত্রলীগ লালিম ললাটপটে রঙিন করেছে। আমরা ছাত্রলীগের গর্বিত উত্তরাধিকার। বঙ্গবন্ধুর আজন্ম রাজনৈতিক সারথি ছিল বাংলাদেশ ছাত্রলীগ।তিনি বলেন, ৬৯ বছরের ইতিহাসে ছাত্রলীগ সংগ্রাম, প্রগতি ও সেবার দেরাজ পতাকা পতপত করে উড়িয়েছে বাংলাদেশ ও মহাদেশের আকাশে আকাশপথে। আজকের এইদিনে আমাদের প্রত্যাশা বাংলাদেশ ছাত্রলীগ চিরজীবী হোক। বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের সহযাত্রী হয়ে, বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলার আশালতা বুনে, মাননীয় দেশরত্ম শেখ হাসিনার সোনালি আভায় ছাত্রলীগ জনম জমন উদ্ভাসিত হোক ঝলমলান