চবির ডিন নির্বাচনে ডঃ ফরিদ উদ্দিন আহামেদ নির্বাচিত

Dr.farid_.jpg

মঈন উদ্দিন মেমোরিয়াল কলেজের অভিনন্দন

হুমায়ূন রশিদ, টেকনাফ :
চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ডিন নির্বাচনে হলুদ প্যানেল হতে টেকনাফের কৃতি সন্তান ডঃ ফরিদ উদ্দিন আহামেদ নির্বাচিত হয়েছেন। তিনি নির্বাচিত হওয়ায় মঈন উদ্দিন মেমোরিয়াল কলেজের গর্ভনিং বডি,মঈন উদ্দিন মেমোরিয়াল ট্রাস্ট,প্রভাষক-প্রভাষিকা ও কর্মচারীরা অভিনন্দন জানিয়েছেন।
২জানুয়ারি সকাল ৯টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাজ বিজ্ঞান অনুষদ মিলনায়তনে ডিন নির্বাচনের ভোটগ্রহণ করা হয়। প্রধান নির্বাচন কমিশনার অধ্যাপক ড.কামরুল হুদা জানান গত ২৭ ডিসেম্বর ৩২জন শিক্ষক ও ২৯ডিসেম্বর ২৮জন শিক্ষক অগ্রিম ভোট দেন।ডিন নির্বাচনের ফলাফলে সাদা দলের প্যানেলকে পরাজিত করে প্রগতিশীল শিক্ষক সমাজ হলুদ প্যানেলের আহ্বায়ক ও অ্যাকাউন্টিং অ্যান্ড ইনফরমেশন সিস্টেম বিভাগের অধ্যাপক ড.সুলতান আহমেদ,কলা ও মানববিদ্যা অনুষদে অধ্যাপক ড.সেকান্দর চৌধুরী,বিজ্ঞান অনুষদের অধ্যাপক ড.সফিউল আলম,ব্যবসায় প্রশাসন অনুষদের অধ্যাপক ড.আওরঙ্গজেব,সমাজ বিজ্ঞান অনুষদের অধ্যাপক ড.ফরিদ উদ্দিন আহামেদ,জীব বিজ্ঞান অনুষদের অধ্যাপক ড.মাহাবুবুর রহমান ও ইঞ্জিনিয়ারিং অনুষদের অধ্যাপক ড.শংকর লাল সাহা নির্বাচিত হয়েছেন। ইতিপূর্বে তিনি রাষ্ট্রপতি মনোনীত বিশ্ববিদ্যালয় সিনেট সদস্য নির্বাচিত হয়েছেন। বর্তমানে তিনি চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাজ বিজ্ঞান গবেষণা ইন্সস্টিটিউটের পরিচালক হিসেবে কর্মরত রয়েছেন। উল্লেখ্য তিনি ক্যামব্রীজ বিশ্ববিদ্যালয় হতে ডক্টরেট ডিগ্রী অর্জন করেন এবং ভারতের নয়াদিল্লীতে অবস্থিত সার্ক বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক হিসেবে নিয়োজিত ছিলেন।এই নির্বাচনে টেকনাফস্থ হ্নীলার কৃতি সন্তান, হ্নীলা মঈন উদ্দিন মেমোরিয়াল ট্রাস্ট ও কলেজ গর্ভনিং বডির চেয়ারম্যান চবির সমাজ বিজ্ঞান অনুষদের নৃ-বিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক ড.ফরিদ উদ্দিন আহামেদ নির্বাচিত হওয়ায় হ্নীলা মঈন উদ্দিন মেমোরিয়াল ট্রাস্ট ও কলেজ গর্ভনিং বডির সেক্রেটারী হেলাল উদ্দিন আহমেদ, কোষাধ্যক্ষ ফখরুদ্দিন আহমেদ,সদস্য এইচএম ইউনুছ বাঙ্গালী,কাইসার উদ্দিন আহমদ,মৌলানা শাকের আহমদ,অধ্যাপক জহির আহমদ,ইব্রাহীম খলিল,জসিদ উদ্দিন আহমেদ,মঈন উদ্দিন মেমোরিয়াল কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ আ.ন.ম তৌহিদুল মাশেক তৌহিদ,হিসাব বিজ্ঞান বিভাগের প্রভাষক কায়সার রশিদ,ইসলামের ইতিহাসও সংস্কৃতির প্রভাষক সাহাব উদ্দিন,ব্যবস্থাপনা বিভাগের প্রভাষিকা আমিরুন নেছা,বাংলা বিভাগের প্রভাষক হাবিবুল কবির,ইংরেজী বিভাগের প্রভাষক মঞ্জুর হোসেন,তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তির প্রভাষক আব্দুল গফুর,কলেজের শিক্ষার্থী ও কর্মচারীবৃন্দ আন্তরিক অভিনন্দন জানিয়েছেন।