হ্নীলা ষ্টেশনে স্বর্ণের দোকানে দুর্ধর্ষ চুরি

nnn.jpg

জসিম উদ্দিন টিপু, টেকনাফ::
টেকনাফে স্বর্ণের দোকানে অভিনব কায়দায় দুর্ধর্ষ চুরি সংঘটিত হয়েছে। ২৪ডিসেম্বর হ্নীলা বাস ষ্টেশনের পুরাতন বাজার সড়কস্থ আবু বক্কর মার্কেটের জনৈক বাসু ধরের মালিকানাধীন “স্বর্ণ বিতানে” ঘটনাটি ঘটেছে। স্থানীয় ও দোকান মালিক সুত্র জানায়, ২২ডিসেম্বর বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় দোকান বন্ধের পর জুমাবারেও যথারীতি স্বর্ণের দোকান বন্ধ ছিল। পূর্ব পাশের্^র জনৈক দর্জি ফরিদের দোকানে ২সপ্তাহ ধরে বসবাসকারী উত্তর বঙ্গের ২ফেরীওয়ালা পূর্ব পরিকল্পিত ভাবে ন্যাক্কারজনক ঘটনাটি ঘটিয়েছে বলে জানাগেছে। সরেজমিনে পরিদর্শন করে দেখা গেছে, দর্জি এবং স্বর্ণের দোকানের মাঝখানের দেয়াল কৌশলে ভেঙ্গে সুড়ঙ্গ করে স্বর্ণের দোকানে প্রবেশ করে আলমারী ভেঙ্গে চোরেরা রক্ষিত সবকিছুই নিয়ে এলাকা ছেড়ে পালিয়ে গেছে। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, ২৩ডিসেম্বর জুমার নামাজের আগেই দর্জির দোকানে অবস্থানকারী কুষ্টিয়া এলাকার ২যুবক কাপড় আনতে যাওয়ার বায়ানা দিয়ে স্বর্ণ এবং টাকা নিয়ে চলে গেছেন। দোকান মালিক বাসু ধর সবকিছু হারিয়ে এখন হতবাক হয়ে পড়েছেন। স্বর্ণের দোকানী বাসু ধর তাঁর ভাই অজিত ধরের মাধ্যমে এপ্রতিবেদককে জানান, আলমারী ভেঙ্গে ৫০ভরির অধিক স্বর্ণ এবং ৫লক্ষাধিক টাকা চুরি করে আমাকে একেবারে শেষ করে দিয়েছে। মালিকপক্ষ এবিষয়ে থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি নিচ্ছেন। হ্নীলা বাজার ব্যবস্থাপনা কমিটির সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক জহির আহমদ দোকানে রাতে কেউ অবস্থানের সুযোগ নেই জানিয়ে এপ্রতিবেদকের কাছে সংবাদের সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, দর্জির দোকানে ফেরীওয়ালার নামে যারা অবস্থান করেছিল আসলে তার মুখোশধারী ডাকাত। মুলত তারাই পরিকল্পিতভাবে চুরি করে হ্নীলা ছেড়ে এখন পালিয়ে গেছে। জানতে চাইলে টেকনাফ মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি তদন্ত) শেখ আফরাফুজ্জামান বলেন, এধরণের সংবাদ আমরা এখনো পায়নি।