হ্নীলার সাবেক সচিব মুক্তিযোদ্ধা হাসান মোহাম্মদ দেলোয়ার আর নেই

Teknaf-Pic-E-23-12-16.jpg

জসিম উদ্দিন টিপু, টেকনাফ::
টেকনাফের হ্নীলা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ এইচ.কে.আনোয়ারের বড় ভাই সাবেক সচিব এবং মুক্তিযোদ্ধা হাসান মোহাম্মদ দেলোয়ার(৭৫) আর নেই। ২৩ডিসেম্বর জুমাবার বিকাল ৩টার দিকে ঢাকার একটি হাসপাতালে তিনি ইন্তেকাল করেছেন। ২১ডিসেম্বর মুক্তিযোদ্ধা দেলোয়ার স্ট্রোক করলে ঢাকার স্কয়ার হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। ২২ডিসেম্বর তাঁকে উচ্চ পর্যায়ের বিশেষ মেডিকেল টীম অপারেশন করেন। এরপর থেকে তাঁর জ্ঞান আর ফিরে আসেনি। সচিব দেলোয়ার মৃত্যুকালে মা, স্ত্রী, ২ছেলে, ভাই-বোনসহ অসংখ্য আত্মীয় স্বজন এবং গুণগ্রাহী রেখে গেছেন। এদিকে হ্নীলা এলাকার কৃর্তিমান পুরুষ, সাদামনের মানুষ, উচ্চপদস্থ অবসরপ্রাপ্ত সরকারী আমলার মৃত্যুতে পুরো এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে।
পানখালী এলাকার মরহুম মাষ্টার আমির আলীর বড় পুত্র হাসান মোহাম্মদ দেলোয়ার (বিসিএস-প্রশাসন) পাক আমলে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের চাকুরীতে ঢুকেন। যুদ্ধ শুরু হলে তিনি দেশে এসে সক্রিয়ভাবে মুক্তিযুদ্ধে অংশ গ্রহণ করেন। দেশ বিভক্তের পর সরকারী গুরুত্বপূর্ণ বিভিন্ন দপ্তরে দায়িত্ব পালনের পাশাপাশি তিনি জেলা প্রশাসক, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের যুগ্ম সচিব, বন ও পরিবেশ মন্ত্রণালয়ের সচিব হিসেবে দক্ষতা এবং সুনামের সহিত দায়িত্ব পালনের পর অবসর গ্রহণ করেন। পরবর্তীতে চাকুরী জীবনে দক্ষতা এবং বিশ^স্থতার বদৌলতে সরকার তাঁকে চুক্তিভিত্তিক বিটিআরসি ও বিটিসিএলের চেয়ারম্যানসহ সম্মানজনক পদে অধিষ্টিত করেন। একজন সৎ এবং মেধাবী কর্মকর্তা হিসেবে তাঁর সুখ্যাতি রয়েছে দেশজুড়ে।
মুক্তিযোদ্ধা সাবেক এই আমলার স্ত্রী মরিয়ম আক্তার ছিলেন ঢাকা বিশ^বিদ্যালয়ের শিক্ষিকা। ২পুত্র দেশের বাইরে অবস্থান করায় জানাজার বিষয়ে এখনো সঠিক সিদ্ধান্ত দিতে পারেনি তাঁর পরিবার। তবে ছোট ভাই হ্নীলা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ¦ এইচ.কে.আনোয়ার সিআইপি তাঁরই অভিভাবক মরহুম বড় ভাইয়ের জন্য সকলের কাছে দোয়া কামনা করে এপ্রতিবেদককে বলেন, জানজার সময়সূচী পরে জানাবেন।#