হ্নীলায় পঙ্গু ব্যাক্তির জমি জবর দখলের অভিযোগ

6543-1.jpg

জসিম উদ্দিন টিপু, টেকনাফ::
টেকনাফের হ্নীলায় আদালতের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে প্রভাবশালী কর্তৃক এক পঙ্গু লোকের জমি জবরদখলের অভিযোগ পাওয়া গেছে। জমি মালিক(প্যারালাইসিস রোগী) পঙ্গু হওয়ায় জবরদখলকারীরা আইন-কানুন কোন কিছুই তোয়াক্কা করছেন না। আদালতের আদেশকে বৃদ্ধাঙ্গুলী দেখিয়ে চক্রটি বর্তমানে পঙ্গু ব্যাক্তির পুরো জমিই দখলে নিতে পায়তারা চালাচ্ছেন বলে জানাগেছে। যুগ্ম জেলা জজ আদালতের আদেশ নামা এবং স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদে দায়ের করা আবেদন সুত্রে জানাগেছে, পশ্চিম সিকদার পাড়া এলাকার মৃত ছিদ্দিক আহমদের পুত্র মুহাম্মদ হেলাল উদ্দিনের খরিদা সুত্রে প্রাপ্ত আর.এস ৯৯৮নং খতিয়ানের ৪৪৯২নং দাগের ২শতক, আর.এস ১৪৪৯নং খতিয়ানের ৪৪৯৩নং দাগের ১৫শতক, সৃজিত বি.এস ৯১৩নং খতিয়ানের ৪৩১৮নং দাগের আন্দরে মোট ১৭শতক জমি জোরপূর্বক দখল করে বসতভিটা এবং মার্কেট নির্মাণর কাজ চালিয়ে যাচ্ছেন পূর্ব সিকদার পাড়া এলাকার মৃত ছৈয়দ উল্লাহর পুত্র নুরুল বশর, মোহাম্মদ হোছন, মো: নুর, মোহাম্মদ ইউনুছ, জাহেদ, মেয়ে রুবিনা, টুরু, জুহুরা, মাহমুদা, নুর জাহান ও নুরুল বশরের স্ত্রী মমতাজ বেগম গং। জমি মালিক হেলাল উদ্দিন বাদী হয়ে কক্সবাজার যুগ্ম জেলা জজ আদালতে একটি মামলা দায়ের করেন। যার নং অপর-১৭/২০১৫ইংরেজি। বিজ্ঞ আদালত গত ২৭/০৪/২০১৫ইং উল্লেখিত জমির উপর নিষেধাজ্ঞা আরেপ করেন। পরবর্তীতে অসহায় হেলাল মালিকানাধীন জমি রক্ষায় চলতি বছরের ২২অক্টোবর স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদেও একটি বিচার দায়ের করেন। যার মামলা নং-১৭২/১৬। জবরদখলকারী চক্র আদালত এবং স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদে উপস্থিত না হয়ে মালিক প্যারালাইসিস রোগী হওয়ার সুযোগকে কাজে লাগিয়ে পুরো জমিই এখন দখলে নিতে চাচ্ছে। টেকনাফ মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আব্দুল মজিদ জানান, এধরণের সংবাদ এখনো পায়নি। আদালতের নির্দেশনা এবং অভিযোগ পেলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।
এদিকে অসহায় পঙ্গু হেলাল উদ্দিন মালিকানাধীন জমি জবরদখলের হাত থেকে রক্ষা করতে আইন প্রয়োগকারী সংস্থা সহ সংশ্লিষ্ট সকলের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।