রোহিঙ্গা ইস্যুতে ওআইসির জরুরি বৈঠক

file.jpeg

মিয়ানমারে রোহিঙ্গা নিপীড়নের জেরে জরুরি বৈঠকের আহ্বান করেছে ইসলামী সহযোগিতা সংস্থা (ওআইসি)।

তবে বৈঠকের কোনো তারিখ বা সময়সূচি এখনো জানানো হয়নি।

সংস্থাটির মহাসচিব ড. ইউসুফ এ আল ওয়াতাইমিন নিউইয়র্ক, জেনেভা ও ব্রাসেলসের স্থায়ী কার্যালয়ের ওআইসি সদস্য দেশগুলোর প্রতিনিধিকে নিয়ে জরুরি বৈঠকের নির্দেশনা দিয়েছেন।

একই সঙ্গে রোহিঙ্গাদের ওপর নির্যাতনের ঘটনায় মিয়ানমার সরকারের প্রতি নিন্দা জানিয়েছে ওআইসি।

জানা গেছে, নিউ ইয়র্ক, জেনেভা ও ব্রাসেলসে ওআইসি সদস্য রাষ্ট্রগুলোর স্থায়ী প্রতিনিধি ও রাষ্ট্রদূত পর্যায়ের বৈঠকের পর পররাষ্ট্রমন্ত্রীদের কাঙিক্ষত বৈঠকটি হতে পারে।

গত একমাসেরও বেশি সময় ধরে রাখাইন প্রদেশে নৃশংসতা চালাচ্ছে মায়ানমারের সেনাবাহিনী। হাজার হাজার লোকজন সীমান্ত পাড়ি দিয়ে বাংলাদেশে আশ্রয় নিচ্ছে।

তবে মিয়ানমার সরকার রোহিঙ্গা মুসলিমদের ওপর নির্যাতনের খবর অস্বীকার করে আসছে।

হিউম্যান রাইট ওয়াচ একাধিকবার প্রমাণ হাজির করেছে যে, সেখানকার সেনাসদস্যরা রাখাইন রাজ্যের রোহিঙ্গা মুসলিমদের বাড়িঘর আগুন দেয়াসহ নারীদের ধর্ষণ করছে।

তবে এই প্রথমবারের মতো রোহিঙ্গা ইস্যু নিয়ে বৈঠক আহবান করলো ৫৭ টি মুসলিম দেশের সংস্থা ওআইসি।