প্রকাশিত সংবাদে হ্নীলার মলা রাখাইনের স্ত্রীর প্রতিবাদ ও ব্যাখ্যা

protibad33.jpg

গত ১৩ডিসেম্বর রাত হতে স্থানীয়, জেলা ও জাতীয় পর্যায়ে বিভিন্ন অনলাইন সংবাদ মাধ্যমে প্রকাশিত “নাফনদীতে বিজিপির উৎপাত:মাছ শিকারে সরকারের হস্তক্ষেপ চায় জেলেরা” শীর্ষক সংবাদটি আমার দৃষ্টিগোচর হয়েছে। উক্ত সংবাদের একাংশে বিশেষ মহলের ইন্দনে আমার স্বামী মলা রাখাইনকে বিজিপির সোর্স, তথ্য পাচারকারী হিসেবে উল্লেখ করা হয়েছে। যা উদ্দেশ্য প্রণোদিত ও ভিত্তিহীন। প্রকৃত ঘটনা হচ্ছে দক্ষিণ ফুলের ডেইলের মৃত নজির আহমদের পুত্র শওকত আলী প্রকাশ শুউনি, নুরুল কবির, মৃত উলা মিয়ার পুত্র ফকির মোহাম্মদ ও হ্নীলা পুরান বাজারের মৃত আবু বক্করের পুত্র হামিদ হোছন মিলে আমার বাড়িতে এসে জাফর আলমকে বিজিপি নাফনদী হতে ধরে নেওয়ার ব্যাপারে জানায়। তারা ফোনে কথা বললেও রাখাইন ভাষা বুঝতে না পারায় আমার স্বামীর সহায়তা চান। আমার স্বামী ভাষা বুঝিয়ে দেওয়ার পর তার বড় ভাই টাকা নিয়ে গিয়ে তাকে ফেরত আনে। এই সুযোগে আমার পরিবার বিরোধী একটি মহল সংবাদকর্মীদের বিভ্রান্তিমূলক তথ্য দিয়ে আমার স্বামীকে পারিবারিক ও সামাজিকভাবে হেয় করার চেষ্টা চালিয়েছে। আমি উক্ত সংবাদাংশের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে সংশ্লিষ্ট কাউকে বিভ্রান্ত না হওয়ার আহবান জানাচ্ছি।

প্রতিবাদকারী:
বুমে রাখাইন
স্বামী-মলা রাখাইন
হ্নীলা পুরাতন বাজার-হ্নীলা-টেকনাফ।