উখিয়ায় অনৈতিক প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় লম্পটের কান্ড

rape-10-years-girls.jpg

ফাইল ছবি

নিজস্ব প্রতিনিধি, উখিয়া |

উখিয়ায় সাবেক ইউপি সদস্যের শ্যালিকার ঠোঁট ছিড়ে নিয়েছে লম্পট যুবক। ঘটনাটি ঘটেছে মঙ্গলবার রাত সাড়ে ৯ টার দিকে। উক্ত ঘটনাকে কেন্দ্র করে এলাকায় থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে।

জানা গেছে, উপজেলার জালিয়াপালং ইউনিয়নের দক্ষিণ সোনাইছড়ি গ্রামের মৃত আনোয়ারের ২ সন্তানের স্ত্রী ও ২ নং ওয়ার্ডের সাবেক ইউপি সদস্যর আবুল হোসনের শ্যালিকা ও এনজিও সংস্থা ঘরণীর মাঠ কর্মী জুবাইদা (২৬) এর মৃত স্বামীর বন্ধু উখিয়া উপজেলার রাজাপালং ইউনিয়নের তুতুরবিল বাঘ ঘোনা নামক এলাকার সোনালীর লম্পট ছেলে অসংখ্য নারী ধর্ষকের অন্যতম হোতা আলী আকবর মিস্ত্রি প্রকাশ লম্পট মিস্ত্রি তার বন্ধুর স্ত্রীকে দীর্ঘ দিন ধরে অনৈতিক প্রস্তাব দিয়ে আসছিল । সে তার অনৈতিক প্রস্তাবে রাজি না হওয়ার ঘটনাকে কেন্দ্র করে ক্ষিপ্ত হয়ে লম্পট আলী আকবর মিস্ত্রি মঙ্গলবার রাত সাড়ে ৯ টার দিকে স্বামী হারা আসহায় জুবাইদার বাড়ীতে অনুপ্রবেশ করে তাকে বেদড়ক মারধর পূর্বক তার মূখে কামড় দিয়ে তার ঠোঁট ছিড়ে নিয়ে দ্রুত ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যায়। এ সময় আহত জুবাইদার শৌর চিৎকারে পার্শ্ববর্তী লোকজন এগিয়ে এসে তাকে উদ্ধার করে উখিয়া হাসপাতালে ভর্তি করেন।

কর্তব্যরত চিকিৎসক ডাঃ কে এম এনামুল হক আহত জুবাইদার শারিরিক অবস্থার অবনতি ও আশংক্যাজনক দেখে তাকে কক্সবাজার সদর হাসপাতালে পাঠিয়েদেন।

প্রত্যক্ষদর্শী ছৈয়দ আলম ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, আহত জুবাইদার স্বামী আনোয়ারের বন্ধু আলী আকবর মিস্ত্রি সব সময় উখিয়া থেকে এসে জুবাইদাকে হুমকি ধমকি দিয়ে থাকত, পরে মঙ্গলবার রাত সাড়ে ৯ টার দিকে নিহত আনোয়ারের স্ত্রী জুবাইদার চিৎকারে ঘটনাস্থল থেকে তাকে উদ্ধার করে ।

এনজিও সংস্থা ঘরণীর উখিয়া উপজেলা ম্যানেজার মোঃ জাকির হোসেন ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেন এবং আহত জুবাইদা এখনো শংখ্যামুক্ত নয় বলে জানান ।

জালিয়াপালং ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান নুরুল আমিন চৌধুরী বলেন, এধরনের লম্পটদের কঠিন শাস্তি হওয়া দরকার।