উখিয়া হাসপাতাল থেকে তুলে নিয়ে স্কুল ছাত্রী ধর্ষণের ঘটনায় ৩ কর্মচারী সহ আটক ৪

followup_2.jpg

রফিক মাহমুদ, উখিয়া :
উখিয়া হাসপাতাল থেকে তুলে নিয়ে স্কুল ছাত্রী ধর্ষণের ঘটনায় অবশেষে ৩ কর্মচারী সহ ৪জনকে আটক করতে সক্ষম হয়েছে উখিয়া থানা পুলিশ।
জানা যায়, গত ৯ ডিসেম্বর শুক্রবার ভোর রাতে ঘটনার সাথে জড়িত সন্দেহে হাসপাতাল এলাকার ঠান্ডা মিয়ার পুত্র আব্দু শুক্কুর (১৮) বলে জানা গেছে। উখিয়া থানা পুলিশের উপ- পরিদর্শক মোঃ মাঈন উদ্দিন জানান, আব্দুস শুক্কুর ছাড়াও আরো ৩ জনকে জিজ্ঞেসাবাদের জন্য থানায় নিয়ে আসা হয়েছে। এদের জিজ্ঞেসাবাদ চলছে বলে তিনি জানান। তারা হলেন, হাসপাতালের ওয়ার্ড বয় মোজাম্মেল হক ও রাজাপালংয়ের আব্দুল মন্নান, রমজান আলী। উল্লেখ্য যে, জালিয়াপালং ইউনিয়নের পরিষদ পাড়া গ্রামের কলিমুল্লার স্ত্রী ছেনোয়ারা বেগমকে গত সোমবার উখিয়া হাসপাতালের ডায়রিয়া ওয়ার্ডে ভর্তি করা হয়। দিন শেষে ছেনোয়ারা বেগমের স্বামী কলিমুল্লা বাড়ীতে চলে যাওয়ায় তার স্কুল পড়ুয়া মেয়ে জোৎস্না আকতার (১২) সোনার পাড়া উচ্চ বিদ্যালয়ের ৬ষ্ঠ শ্রেণির ছাত্রী মাকে দেখা শোনার জন্য হাসপাতালে থাকেন। ওই দিন রাত সাড়ে ১২ টার দিকে একদল সশস্ত্র সন্ত্রাসী দলবদ্ধ ভাবে হাসপাতালের ২য় তালায় উঠে স্কুল ছাত্রীকে জোরপূর্বক অস্ত্রের মূখে অপহরণ করে পার্শ্ববর্তী কবরস্থানের জঙ্গলে নিয়ে গিয়ে ধর্ষণ করে। স্কুল ছাত্রীর শৌর চিৎকারে এলাকাবাসী ঘটনাস্থল থেকে তাকে উদ্ধার করে।
এ ব্যাপারে উখিয়া থানায় একটি মামলা রুজু করা হয়েছে। যার মামলা নং- ৭/১৬।