উখিয়ার উপক’লে উচ্ছেদ আতংকে ৩ পরিবার

Hoirani.jpg

নিজস্ব প্রতিনিধি, উখিয়া :
উখিয়ার উপক’লীয় জালিয়াপালং ইউনিয়নের চেংছুড়ি গ্রামে এলাকার চিহ্নিত ভুমি দস্যুরা যুগ যুগ ধরে ভোগ দখলীয় বসত ভিটা থেকে উচ্ছেদ করে তাদেরকে সর্বশান্ত করার জন্য প্রতিপক্ষরা জমির মালিক মৃত ইয়াকুব আলীর ছেলে নুরুল হক, মৃত আব্দুল জলিলের ছেলে আবুল হোসেন ও মৃত মোঃ সোলতানের ছেলে মোহাম্মদ উল্লাহ সহ ৩ জনের বিরুদ্ধে প্রশাসনের বিভিন্ন দপ্তরে ভুল তথ্য সরবরাহ দিয়ে বসত ভিটা থেকে উচ্ছেদ করার জন্য অভিযোগ করেছে।
এ ব্যাপারে, মৃত ইয়াকুব আলীর ছেলে নুরুল হক বাদী হয়ে জি আর ১৪১/২০১৫ ইং তারিখে কক্সবাজার সিনিয়র জুড়িসিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট ২য় আদালত উখিয়ায় একটি মামলা দায়ের করেন। এ ছাড়াও প্রতিপক্ষ বৈমেরং চাকমা,মংফু চাকমা, উথাংচিং চাকমা, ফত্তা চাকমার বিরুদ্ধে উচ্চ আদালতেও মামলা চলমান রয়েছে।
জমির মালিকেরা ১ একর জায়গায় বর্তমানে ভোগ দখল করছে। কিন্তু প্রতিপক্ষরা উপজাতি হওয়ায় তারা ভুল বুঝিয়ে প্রশাসনের বিভিন্ন দপ্তরে জমির মালিক দাবী করে অভিযোগ দায়ের করেছে। কিন্তু তারা জমি দাবী করলেও ঘটনাস্থলে গিয়ে দেখা যায় ওই জমির উপর যুগ যুগ ধরে ঘর বাড়ি নির্মান করে বসতি করছেন নুরুল হক, আবুল হোসেন ও মোঃ উল্লাহ।
তবে প্রতিপক্ষ বৈমেরং চাকমা বলেন, এ জমি আমাদের। কিন্তু স্থানীয় গ্রামবাসীরা বলছে বৈমেরং চাকমা, মংফু চাকমা, উথাংচিং চাকমা, চিনতো চাকমা ও ফত্তা চাকমার কোন পৈত্রিক সম্পক্তি ওই জায়গায় নেই।
এ ঘটনায় নুরুল হক বাদী হয়ে ওই উপজাতিদের বিরুদ্ধে চাঁদাবাজির মামলাও করেন। জমির মালিকেরা উক্ত জমিতে সুন্দর ভাবে দিন যাপন করার লক্ষে তারা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, স্থানীয় সংসদ সদস্য, জেলা প্রশাসক ও উপজেলা নির্বাহী অফিসারের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।