গণতান্ত্রিক অসাম্প্রদায়িক সমৃদ্ধ দেশ বির্নিমানে দৌলতখাঁন জীবন দিয়েছে

.jpg

চকরিয়ায় স্বরণ সভায় সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান রেজাউল করিম
এম.জিয়াবুল হক,চকরিয়া :
গতকাল ৫ ডিসেম্বর শহীদ দৌলত দিবস উপলক্ষ্যে চকরিয়া উপজেলার কোনাখালী ইউনিয়নে শহীদ দৌলতখাঁনের পারিবারিক কবরস্থানে জেলা আওয়ামীলীগ পক্ষে থেকে পুষ্পমাল্য অর্পন ও দোয়া মাহফিল আয়োজন করা হয়। জেলা আওয়ামীলীগ সহ সভাপতি ও চকরিয়া উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান রেজাউল করিম, জেলা আওয়ামী লীগ সদস্য এ.টি.এম. জিয়াউদ্দিন চৌধুরী, আমিনুর রশিদ দুলাল, মিজানুর রহমানের নেতৃত্বে উপজেলা, পৌরসভা আওয়ামীলীগ ও সহযোগী সংগঠনের অসংখ্য নেতৃবৃন্দ কবরে পুষ্পমাল্য অর্পন ও দোয়া মাহফিল অংশ গ্রহণ করেন। পর পর মাতামুহুরী সাংগঠনিক উপজেলা কৃষকলীগ, চকরিয়া পৌর আওয়ামীলীগ ও উপজেলা ছাত্রলীগ ৯০ এর ছাত্র আন্দোলন পরিষদ কবরে পুষ্পমাল্য অর্পনের মাধ্যমে শ্রদ্ধা জ্ঞাপন করেন।
পুস্পমাল্য অর্পন শেষে পরবর্তীতে চকরিয়া থানা সেন্টারে বটতলায় ৯০ এর ছাত্র আন্দোলন পরিষদ আয়োজিত দৌলত খান স্বরনে অনুষ্টিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান জননেতা রেজাউল করিম বলেন, বঙ্গবন্ধুকে হত্যার পর সামরিক শাসকদের ক্ষমতা দখল মুক্তিযুদ্ধের বাংলাদেশ অস্থিত্বের সম্মুখীন হয়ে পড়েছিল। সেইসময় জননেত্রী শেখ হাসিনা বাংলাদেশে ফিরে এসে জনগনকে সাথে নিয়ে তীব্র আন্দোলনের মাধ্যমে সাময়িক শাসক সরকারের পতন গঠায়। সেই গণতান্ত্রিক আন্দোলনে সেলিম দেলোয়ার, মোজাম্মেল, দীপালী শাহ, ময়েজ উদ্দীন, তাজুলসহ অগণিত শহীদের সাথে চকরিয়া ছাত্রলীগ নেতা দৌলত খান পুলিশের গুলিতে জীবন দিয়েছিল। তিনি বলেন, দৌলতখানের লক্ষ্য ছিল গণতান্ত্রিক অসম্প্রদায়িক মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় একটি সুখী সমৃদ্ধশালী বাংলাদেশ বির্নিমানে। আজ তিনি নেই কিন্তু জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ এখন মধ্য আয়ের উন্নত দেশে পরিণত হচ্ছে।
আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন ৯০ এর ছাত্র আন্দোলন পরিষদ চকরিয়া শাখার সভাপতি জামাল উদ্দীন জয়নাল। বক্তব্য রাখেন, জেলা আওয়ামীলীগ সদস্য এ.টি.এম. জিয়াউদ্দিন চৌধুরী, আমিনুর রশিদ দুলাল, মিজানুর রহমান, চকরিয়া পৌরসভার মেয়র আলমগীর চৌধুরী, চকরিয়া উপজেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি সরওয়ার আলম, পেকুয়া উপজেলা আওয়ামীলীগ সহ-সভাপতি সাংবাদিক জহিরুল ইসলাম, চকরিয়া উপজেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি ফজলুল করিম সাইদী, সৈয়দ আলম কমিশনার, আবু মুছা, পৌর আওয়ামীলীগ সাধারণ সম্পাদক আতিক উদ্দিন চৌধুরী, উপজেলা স্বেচ্ছসেবকলীগের সভাপতি শওকত হোসেন, উপজেলা যুবলীগের সাধারন সম্পাদক কাইছার উদ্দিন কছির, কোনাখালী ইউপি চেয়ারম্যান দিদারুল হক সিকদার, চকরিয়া পৌর কৃষকলীগের সভাপতি সুলাল কান্তি দাশ, সাধারণ সম্পাদক আবদুল্লাহ আল ফারুক লোটাস, মোক্তার আহমদ কন্ট্রাক্টর, জাহাঙ্গীর, মোহাম্মদ তোয়াহা, হাসান আলী, পৌর আওয়ামীলীগের অর্থ সম্পাদক আলফাজ, ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক হুমায়ুন কবির, পৌর কাউন্সিলর মুজিবুল হক মুজিব, সাইফুল ইসলাম, উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আরিফুল ইসলাম চৌধুরী আরিফ, সাধারণ সম্পাদক সাদ্দাম হোসেন মিটু, জিহান, পারভেজ, মিনার, জাহাঙ্গীর, আবদুল্লাহ আল হাসান সহ আওয়ামীলীগ নেতৃবৃন্দ, ছাত্রলীগ, কৃষকলীগ, স্বেচ্ছাসেবকলীগ, নেতৃবৃন্দসহ স্থানীয় রাজনৈতিক, সামাজিক নেতাসহ সকল শ্রেণি পেশার মানুষ উপস্থিত ছিলেন।