জেলা পরিষদ নির্বাচনে আরো ৫ জনের মনোনয়নপত্র বাতিল

dist-council-election_31947_1480098781.jpg

শহীদুল্লাহ্ কায়সার ॥
জেলা পরিষদ নির্বাচনের মনোনয়নপত্র বাছাইয়ের দ্বিতীয় দিনে ঝরে গেলেন আরো ৫ ব্যক্তি। তাঁদের সবাই ২৮ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিতব্য নির্বাচনে সদস্য প্রার্থী হওয়ার ইচ্ছায় ইতিপূর্বে মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছিলেন। গতকাল ৪ডিসেম্বর শনিবার কাগজপত্র যাচাই-বাছাইয়ের পরই তাঁদের আসন্ন নির্বাচনে অংশগ্রহণের অযোগ্য ঘোষণা করা হয়। এ নিয়ে এবারের নির্বাচনে অংশগ্রহণের ইচ্ছায় মনোনয়নপত্র কেনা ১২ ব্যক্তির মনোনয়নপত্র বাতিল করা হলো। যাঁদের সবাই পুরুষ এবং সদস্য পদের সম্ভাব্য প্রার্থী ছিলেন।
প্রথম দিনের মতো দ্বিতীয় দিনের বাছাইয়ে ঝরে পড়া ব্যক্তিদের বেশিরভাগই ঋণ খেলাপীর দায়ে অভিযুক্ত। গতকাল ৪ ডিসেম্বর শুধুমাত্র ১৫ নং ওয়ার্ডে সদস্য পদে প্রার্থী হতে মনোনয়নপত্র সংগ্রহকারী শামসুল আলমকে আয়কর রিটার্ন দাখিল না করায় অযোগ্য ঘোষণা করা হয়। অন্য ৪ প্রার্থীর মনোনয়নপত্র বাতিল করা হয় ব্যাংকে ঋণ খেলাপী হওয়ার কারণে। ঋণ খেলাপীর দায়ে অযোগ্য ঘোষিত প্রার্থীরা হলেন, ৬ নং ওয়ার্ডের নুরুল আমিন চৌধুরী, ৭ নং ওয়ার্ডের খলিলুর রহমান, ৯ নং ওয়ার্ডের মো. আরিফুল ইসলাম এবং ১২ নং ওয়ার্ডের মোঃ মুহিবুল্লাহ্। আগামি ৬ ডিসেম্বর পর্যন্ত অযোগ্য ঘোষিত উল্লিখিত প্রার্থীরা অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনারের কাছে আপীল করার সুযোগ পাবেন। সেখান থেকে উৎরে গেলে নির্বাচনে অংশগ্রহণ করতে পারবেন। অন্যথায় উচ্চ আদালতের সিদ্ধান্ত ছাড়া নির্বাচনে অংশগ্রহণের তাঁদের সামনে আর কোন সুযোগ খোলা থাকবে না।
আজ ৫ ডিসেম্বর মনোনয়ন পত্র প্রত্যাহারের শেষ দিন। আগামিকাল ৬ ডিসেম্বরই জানা যাবে কারা হবেন অনুষ্ঠিতব্য জেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান ও সদস্য প্রার্থী।